| সকাল ১০:১৮ - সোমবার - ২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

ময়মনসিংহে ইয়াবাসহ ধরা খেয়ে কারাগারে ইমাম

ময়মনসিংহে ইয়াবা সহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েন এক ইমাম। এরপর তাকে যেতে হয় কারাগারে। তার নাম মো. আল আমিন। প্রশিক্ষণ নেয়ার জন্য ভর্তি হয়েছিলেন একটি প্রতিষ্ঠানে।

 

লকডাউনের কারণে প্রতিষ্ঠান ছুটি হওয়ায় বেড়াতে যান ময়মনসিংহে এক আত্মীয়ের বাড়িতে। আর সেখান থেকেই পাঞ্জাবির পকেটে ইয়াবা নিয়ে ফিরছিলেন নিজবাড়ি।

 

আল আমিনের বাড়ি নেত্রকোনার দূর্গাপুর উপজেলার রামনগর কাকজোড় গ্রামে। তার বাবার নাম জয়নাল আবেদীন।

 

আল আমিন দূর্গাপুরের জারিয়া চরেরভিটা মসজিদে দেড় বছর ধরে ইমামের দায়িত্ব পালন করছিলেন।

 

গত ২৮ মার্চ নূরানি মুয়াল্লিম হিসেবে প্রশিক্ষণ নিতে যাত্রাবাড়ীর কাজলারপাড় প্রধান নূরানি মুয়াল্লিম প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তি হন। কিন্তু লকডাউনের কারণে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

 

ছুটি পেয়ে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার জাটিয়া ইউনিয়নের টাঙ্গনগাতি গ্রামের ফুফুর বাড়িতে বেড়াতে যান আল আমিন।

 

কিছুদিন ফুফুর বাড়িতেই থাকেন। গত বৃহস্পতিবার বাড়ি যাওয়ার সময় ফুফাতো ভাই ইমনের মাধ্যমে সংগ্রহ করেন কিছু ইয়াবা।

 

সেগুলো নিয়ে বিকেলে বাড়িতে ফিরছিলেন আল আমিন। তবে পাঞ্জাবির পকেটে ইয়াবা নিয়ে বেশি দূর যেতে পারলেন না।

 

ঈশ্বরগঞ্জের হারুয়া বাসস্টেশন এলাকায় আল আমিনকে সন্দেহ করে পুলিশ। এরপর তাকে তল্লাশি চালিয়ে ১১টি ইয়াবা উদ্ধার করেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই কাওসার আহমেদ জিহাদ।

 

পরে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে এসআই জিহাদ নিজেই থানায় মাদক আইনে মামলা করেন।

 

শুক্রবার দুপুরে তাকে ময়মনসিংহ আদালতে পাঠানো হয়।

 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আল আমিন জানান, মাদরাসা ছুটি হওয়ায় ফুফাতো ভাইয়ের কাছ থেকে ইয়াবাগুলো নিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন। বাড়িতে নিয়ে সেগুলো সেবন করতেন তিনি।

 

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মো. আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, আল আমিনের স্বজনরা মাদক ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত। তার ফুফা লাল মিয়াও এ ব্যবসা করেন। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

সুত্রঃ ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ১০, ২০২১