| সকাল ১০:৩৮ - সোমবার - ২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ - ১০ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মেয়রকে লক্ষ্য করে গুলি, আধাবেলা হরতাল

ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর এলাকায় নবনির্বাচিত হ্যাটট্টিক বিজয়ী পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণের ঘটনায় আধাবেলা হরতাল পালন করছেন ব্যবসায়ীরা।

 

সোমবার সকাল ৬টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত এ আধাবেলা হরতাল চলেছে।

 

হরতালের কারণে কাঁচাবাজার, মাছবাজার, ওষুধ ও খাবারের দোকানও বন্ধ রয়েছে। পৌর বাসস্ট্যান্ড, অটোস্ট্যান্ড থেকে কোনো যানবাহন আন্তঃসড়কে চলাচল করেনি। হরতালের কারণে পুরো শহর রয়েছে ফাঁকা।

 

এ ছাড়া সকাল থেকে পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার সংবাদ পাওয়া যায়নি।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যবসায়ীদের তথ্যে জানা যায়, গৌরীপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত হ্যাট্টিক বিজয়ী পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে হত্যার উদ্দেশ্যে রোববার গুলিবর্ষণ ও হামলার প্রতিবাদে এ হরতাল চলছে।

 

তবে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম জানান, আমি বা আমার কোনো লোকজন হরতালের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়। আমাকে পৌরবাসী বিপুল ভোটে টানা তিনবার মেয়র পদে নির্বাচিত হয়েছেন। আমার ওপর হামলার ঘটনায় ব্যবসায়ীরা স্বপ্রণোদিতভাবে তারা দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন, যানবাহনও চালাচ্ছেন না।

 

 

কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম জানান, নবনির্বাচিত পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণের ঘটনায় আজকের আধাবেলার হরতাল ডাকা হয়। হরতাল ২টা পর্যন্ত চলবে।

 

এর আগে রোববার সংবাদ সম্মেলনে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম বলেন, বিগত নির্বাচনে পরাজিত করতে না পারায় আমি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার। নির্বাচনের আগেও আমাকে একটি হত্যা মামলায় আসামি করা হয়েছিল।

 

তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু চত্বরে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে কার্যালয়ে ফিরে আসি। কার্যালয় থেকে বাসায় আসার মুর্হূতে ভবনের গেটে পাকা রাস্তায় আসতেই হত্যার উদ্দেশ্যে রোববার দুপুর ১টার দিকে গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি ছেলে তানজির আহমেদ রাজিবের নির্দেশে এ গুলি চালানো হয়।

 

আমি শুনেছি, রাজিব বলছে, ‘এই মেয়র চলে যাচ্ছে গুলি কর, গুলি কর’। এই কথা বলার পরে প্রথমে সহনাটী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান দুলাল আহাম্মেদ গুলি চালায়, এর পর গুলি করে শোয়েব মুনশী। আমাকে বাঁচাতে এসে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন দিলু (৩৫) ও যুবলীগকর্মী আল আমিন (৩১) আহত হন।

 

অপরদিকে সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবে জাতীয় সদস্য সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ এক সংবাদ সম্মেলন করেন। মেয়রের ওপর হামলা ও গুলিবর্ষণের অভিযোগ সত্য নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গৌরীপুর আসার পথে গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌর মেয়রের নেতৃত্বে এমপির গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়েছে।

 

এমপি আরও জানান, নির্বাচনের পরেই পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম তাকে হুমকি দেন। এ ঘটনায় ময়মনসিংহ কোতোয়ালি থানায় তিনি জিডি করেছিলেন। বর্তমানে তিনি ও তার ছেলে তানজির আহমেদ রাজিব জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। তিনি জীবনের নিরাপত্তা দাবি করেন।

 

এ প্রসঙ্গে গৌরীপুর থানার ওসি খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জানান, ঘটনার আগে পরে কেউ গোলাগুলির শব্দ শোনেনি। আমরাও গুলিবর্ষণের কোনো খবর পাইনি। দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

 

ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব এমপির সংবাদ সম্মেলনের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন ডেকেছে গৌরীপুর পৌর আওয়ামী লীগ। দুপুরে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:২০ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৮, ২০২১