| সন্ধ্যা ৭:৩৪ - শুক্রবার - ১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ - ৩রা রমজান, ১৪৪২ হিজরি

ময়মনসিংহে মাদরাসাছাত্রীকে গণধর্ষণ-ভিডিও ধারণ, গ্রেফতার ৫

মাদরাসাছাত্রীকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে ময়মনসিংহে পাঁচ যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪। এসময় বিভিন্ন কম্পিউটার সরঞ্জামাদি, মনিটর, নগদ টাকা, মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়।

 

বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে সদর উপজেলার রূপাখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

 

অভিযোগের বরাত দিয়ে ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. ফজলে রাব্বি বলেন, গত ২৬ জানুয়ারি রাতে পূর্বপরিচিত মো. আশিক মোবাইল ফোনে কল দিয়ে কথা আছে বলে মাদরাসাছাত্রীকে ঘর থেকে বের হতে বলেন।

 

বাড়ির আঙ্গিনার পাশে থাকা আশিক ও তার সহযোগীরা গামছা দিয়ে মুখ ও হাত-পা বেঁধে কাঁধে করে দূরে খালি জায়গায় নিয়ে যায়। সেখানে তারা রাতভর ধর্ষণ করে এবং ফোন দিয়ে ভিডিও চিত্র ধারণ করে অজ্ঞান অবস্থায় ওই ছাত্রীকে ফেলে রেখে যায়।

 

ঘটনাটি কাউকে জানালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়।

 

তিনি আরও বলেন, ২৭ ফেব্রুয়ারি মো. খোকন মোবাইলে ধারণকৃত ধর্ষণের ভিডিও বিভিন্ন লোকজনকে দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে।

 

মঙ্গলবার নির্যাতনের শিকার ওই মাদরাসাছাত্রীর বাবা একটি লিখিত অভিযোগ দিলে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

 

গ্রেফতাররা হলেন- সিরাজুল ইসলামের ছেলে নাছিম আহম্মেদ রিপন (২২), আইয়ুব আকন্দের ছেলে আশিক আকন্দ (১৯), হানিফ আকন্দের ছেলে লিওন আকন্দ (২০), ফজলুল হকের ছেলে মো. খোকন (২৭)। এরা সবাই সদর উপজেলার রূপাখালী পূর্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেফতার আরেকজন মুক্তাগাছা উপজেলার সোহরাব উদ্দিনের ছেলে মো. ছমিন (১৭)।

 

তাদের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান মেজর মো. ফজলে রাব্বি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৫৮ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৩, ২০২১