| দুপুর ২:৫৩ - রবিবার - ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ - ১০ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

ময়মনসিংহে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক, বাড়ি থেকে ডেকে কিন্ডারগার্টেনে নিয়ে ধর্ষণ

লোক লোকান্তরঃ  মোবাইলে বাড়ি থেকে ডেকে কিন্ডারগার্টেনে নিয়ে কলেজছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে মো. নাঈম ফকির নামে এক যুবক।

 

ওই যুবকের সঙ্গে মোবাইলে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে কলেজছাত্রীর। ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নে এই ঘটনাটি ঘটে।

 

এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার গৌরীপুর থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান গৌরীপুর থানার ওসি মো. বোরহান উদ্দিন।

 

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, কলেজছাত্রীর সঙ্গে ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট উপজেলার কুমুরিয়া পূর্বপাড়ার মো. আইয়ুব আলী ফকিরের পুত্র মো. নাঈম ফকিরের (২৪) মোবাইল ফোনে প্রায় এক বছর যাবত কথাবার্তা চলছিল।

 

একপর্যায়ে উভয়ের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক হয়। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে নাঈম ফকির ওই কলেজছাত্রীকে মোবাইলে কল দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে আসে।

 

এরপর তার দুই সহযোগী একই এলাকার মৃত আলাল উদ্দিনের পুত্র মো. রায়হান উদ্দিন (১৯), মো. আবু সাঈদের পুত্র মো. রিয়াদ মিয়ার (২০) সহযোগিতায় পার্শ্ববর্তী প্রি-ক্যাডেট স্কুলের ভেতরে নিয়ে নাঈম ফকির জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

 

ভিকটিমের চিৎকারে এলাকাবাসী নাঈম ফকির ও রায়হান উদ্দিন নামে দুজনকে আটক করে এবং তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল আটকে রাখে।

 

গৌরীপুর থানার সাব-ইন্সপেক্টর মো. সামছুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার ও মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের রোববার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:৫৮ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২৩, ২০২০