| সকাল ১০:১২ - মঙ্গলবার - ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ - ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ - ৮ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি

ময়মনসিংহের লিফটে আটকা পড়লেন ১৮ আইনজীবী, অবশেষে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস

লোক লোকান্তরঃ  ময়মনসিংহের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের লিফটে আটকা পড়লেন ১৮ আইনজীবী। তারা টানা ৩৮ মিনিট লিফটে আটকা থাকেন। খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।

 

সোমবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে আদালতের পাঁচ তলা থেকে নামার সময় এ ঘটনা ঘটে। আটকা পড়ে সিনিয়র ৫-৬ আইনজীবী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

 

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আইনজীবীরা। তারা আদালত বর্জনের ঘোষণা দেন। ফলে দুপুর দেড়টার পর স্থবির হয়ে পড়ে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কার্যক্রম।

 

খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান আল হোসাঈন তাজ।

 

আরও পড়ুন – দুই বস্তা হাড় ও মাথার খুলি উদ্ধারের ঘটনায় মামলা, বাপ্পী কারাগারে 

 

তিনি জানান, টানা ৩৮ মিনিট লিফটের ভেতরে আটকা ছিলেন ১৮ জন আইনজীবী। এ সময় সিনিয়র বেশ কয়েকজন আইনজীবী অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে তারা এসে আইনজীবীদের উদ্ধার করে।

 

এই আইনজীবী নেতা আরও জানান, এ ঘটনায় দুপুর দেড়টার পর আইনজীবীদের পক্ষ থেকে আদালত বর্জনের ঘোষণা দেয়া হয়। একই সঙ্গে, চিফ জুডিশিয়াল ভবনের চতুর্থ তলায় আমলি আদালতের কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হয়েছে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত না হলে কর্মসূচি দেয়া হতে পারে।

 

বিক্ষুব্ধ আইনজীবীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘ভবনটি উদ্বোধনের পর থেকে লিফট দুর্ঘটনা হরহামেশাই ঘটছে। এর আগেও বহুবার আইনজীবীরা লিফটে আটকা পড়েছেন। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে কর্তৃপক্ষের টনক নড়ছে না। মূলত ভবন নির্মাণের সময় নিম্নমানের লিফট দেয়ার কারণে একই ঘটনা ঘটছে।

 

ময়মনসিংহ জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবী আলহাজ আব্দুল গফুর জানান, টানা ৩৮ মিনিট লিফটে আটকা পড়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলাম। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আমিসহ ১৮ জন আইনজীবীকে উদ্ধার করেছে। আদালত ভবনে এ ধরনের দুর্ঘটনা দুঃখজনক।’

 

ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট নূরুল হক বলেন, আইনজীবীদের দাবি অনুযায়ী ওই ভবনের চতুর্থ তলায় আমলি আদালতের কার্যক্রম পরিচালনা করা না হলে আদালত বর্জন কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে।

 

তবে এ বিষয়ে জানতে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সুত্রঃ জাগো নিউজ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:০৬ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৬, ২০২০