সকাল ৮:৫৩ - বুধবার - ২৭শে মে, ২০২০ ইং - ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ - ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

ব্যবসায়ীদের ঘোষণা

ময়মনসিংহে ঈদের আগে দোকান-মার্কেট-শপিংমল খুলবে না

লোক লোকান্তরঃ  সারা দেশে সীমিত আকারে রোববার (১০ মে) থেকে শপিংমল খোলার সরকারি সিদ্ধান্ত হলেও করোনা মোকাবিলায় ময়মনসিংহের সকল দোকান-মার্কেট-শপিংমল না খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

 

শনিবার (৯ মে) দুপুরে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের শহীদ সাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে এক যৌথ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেন ব্যবসায়ী নেতারা। ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আমিনুল হক শামীমের সভাপতিত্বে এ সভায় চেম্বারের সদস্য, দোকান-মালিক সমিতির সদস্য এবং সকল শপিংমলের ব্যবসায়ীদের উপস্থিতিতে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আমিনুল হক শামীম বলেন, দোকান মালিক সমিতির নেতাদের উপস্থিতিতে সকলের মতামতের ভিত্তিতে ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট ও শপিংমল আগামী ঈদ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

 

পরবর্তীতে পরিস্থিতি বিবেচনায় খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বিষয়টি তদারকির জন্য চেম্বার অব কমার্সের একটি মনিটরিং টিমও গঠন করা হয়েছে।

 

ব্যবসায়ী নেতারা জানান, সরকার থেকে যেভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলার কথা বলা হয়েছে, এখন স্বল্প সময়ে সেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে বা মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করে মার্কেট বা দোকান চালু রাখা সম্ভব হবে না।

 

দোকান খোলা রাখলে সংক্রমণ বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে। তাই এ বিষয়টি মাথায় রেখে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ও করোনার ভয়াবহ থেকে ময়মনসিংহবাসীকে মুুুক্ত রাখতেই এ সিদ্ধান্ত।

 

এদিকে দোকানপাট বন্ধের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ময়মনসিংহের সর্বস্তরের মানুষ।

 

সুজন- সুশাসনের জন্য নাগরিকের ময়মনসিংহ মহানগরী শাখার সম্পাদক আলী ইউসুফ বলেন, এটি একটি সময়োচিত সিদ্ধান্ত। এতে করে করোনা ছড়ানোর যে আশঙ্কা ছিল তা অনেকাংশেই কমবে। দোকানপাট খোলা হলে কেনাকাটার জন্য মানুষের ঢল নামতো এবং কোনোভাবেই সেই ঢল থামানো সম্ভব হতো না। এ বিষয়টি বিবেচনা করে শপিংমল না খোলার যে সিদ্ধান্ত ব্যবসায়ী নেতারা নিয়েছেন সেই সিদ্ধান্তকে আমরা শ্রদ্ধা ও সাধুবাদ জানাই।

 

ছবি প্রতীকী

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৫৭ অপরাহ্ণ | মে ০৯, ২০২০