|

রনি না মোস্তাফিজ, কে খেলবেন আজ?

শনিবার হুট করেই দলে ঢুকেছেন বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি। বিসিবি আনুষ্ঠানিকভাবে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে এ তথ্য। সিমিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দীন, বাঁহাতি মোস্তাফিজ আর সম্ভাবনাময় আরাফাত মিশুর সঙ্গে আবু হায়দারকে দেখে প্রথমে অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো কন্ডিশনের সুবিধা নিতেই পেসার বাড়ানো হলো।

কারণ প্রায় প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে রাজধানীসহ সারাদেশে। বৃষ্টিতে শুক্রবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলা শুরু হয়েছে দেড় ঘন্টা পর। ম্যাচের আকারও হয়েছে ছোট। তাই ভেজা আবহাওয়া দেখেই বুঝি দলে বাড়তি পেসার নেয়া। আসলে তা নয়, আরেক পেসার আরাফাত মিশুর সাইড স্ট্রেইন ইনজুরি। তাই বিকল্প হিসেবে আবু হায়দার রনিকে নেয়া।

তবে কি শেষমুহুর্তে দলে আসা রনি আজ রনি খেলবেন? এ প্রশ্ন অনেকের মনেই উঁকিঝুঁকি দিচ্ছে। তবে এমন নিশ্চয়তা মেলেনি। কারণ আফগানদের বিপক্ষে তিন পেসার খেলানোয় আছে বড় ধরনের ঝুঁকি। কারণ গতকাল (শনিবার) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আফগান মিডলঅর্ডার নাজিবউল্লাহ জাদরান আর মোহাম্মদ নবীর উত্তাল ব্যাটিংটাই ছিল জিম্বাবুয়ান ফাস্ট বোলারদের বিপক্ষে।

দুজনে মিলে যে ১০ ছক্কা হাকিয়েছেন, তার ৯টিই এসেছে জিম্বাবুয়ান পেসার চাতারা, জার্ভিস আর মাদজিভার বিপক্ষে। তাই বাড়তি পেসার নিয়ে মাঠে নামার অর্থ বাঘের মুখে ছাগল দেয়ার মত। এছাড়া শেরে বাংলায় সন্ধ্যার পর থেকে সময় গড়ানোর সাথে শিশির পড়ে প্রচুর। পেসারদের বল স্কিড করে। ব্যাটে আসে ভাল গতিতে। তখন শটস খেলাও সহজ হয়ে যায়।

যে কারণে নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্ট দ্বিধায়। আজ (রোববার) সকালে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু তা বলেও ফেলেছেন, ‘আফগানরা জোরে বলের বিপক্ষে অনেক বেশি সাবলীল। আরও একটি কারণে বাড়তি পেসার অন্তর্ভুক্তিতে আছে সংশয়। তা হলো, সন্ধ্যার ঘন্টাখানেক পর থেকেই শুরু হয় শিশির পড়া। শিশিরে ভিজে একাকার হয়ে যায় শেরে বাংলার আউটফিল্ড। তখন পেস বোলারদের বল স্কিড করে। খানিক জোরে ব্যাটে আসে। ব্যাটসম্যানদের স্ট্রোক খেলা তুলনামুলক সহজ হয়ে যায়।’

কাজেই আজ সন্ধ্যায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের তিন পেসার ফর্মুলায় মাঠে নামার সম্ভাবনা খুব কম, রীতিমত শূন্যের কোঠায়। সেক্ষেত্রে আবু হায়দার রনির ১১ জনে থাকার সম্ভাবনাও কম। তবে টিম ম্যানেজমেন্ট যদি মোস্তাফিজুর রহমানের বদলে তাকে খেলাতে চান, তাহলে ভিন্ন কথা।

রনি আর মোস্তাফিজ দুজনই বাঁহাতি। মোস্তাফিজের সময়টা ভাল যাচ্ছে না। আগের ম্যাচেও তেমন ভাল বল করেননি। লাইন ও লেন্থ বজায় রেখে বল করতে পারেননি। কিছু আলগা ডেলিভারি ছুড়েছেন। তাই তার বদলে রনিকে খেলানোর সম্ভাবনা আছে।

এছাড়া রনির ব্যাটিং সামর্থ্যটাও থাকছে বিবেচনায়। মোস্তাফিজ সে অর্থে ব্যাটিং পারেন না। বিগ হিট নেয়ার ক্ষমতা নেই বললেই চলে। বাঁহাতি রনি নিচের দিকে নেমে হাত খুলে বিগ হিট নেয়ার পাশাপাশি একটু দেখেও খেলতে পারেন। কাজেই আফগানদের বিপক্ষে আজ রনি একাদশে ঢুকে গেলে অবাক হবার কিছু থাকবে না।

তার মানে সম্ভাব্য একাদশ হতে পারে এমন: সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান রুম্মন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আফিফ হোসেন ধ্রুব, সাইফউদ্দীন, তাইজুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান/আবু হায়দার রনি

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:০০ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯