|

প্রধানমন্ত্রীর জনসভার সফলতায়

ময়মনসিংহের গতিশীল রাজনীতির প্রর্বতক দুই সহোদর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ   মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনকের কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হসিনার ময়মনসিংহ সফর তিনবার বাতিল হওয়ার পর যখন স্বল্প সময়ে দুই নভেম্বর পুনরায় আগমনের সিদ্ধান্ত হয়। এই আগমনেও চারিদিকে নানা গুঞ্জন শুরু হয়, শেষে এবারও বাতিল হয়ে যাবে কিনা?

 

সকল গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আগমন সফল করে বিশাল জনসভা উপহার দিলেন রাজনৈতিক অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র ময়মনসিংহের তরুণ প্রজন্মের এক নবদিগন্তের উন্মোচনকারী ও গতিশীল রাজনীতির প্রর্বতক দুই সহোদর। তার প্রমান বাংলাদেশের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ময়মনসিংহে আগমনে বিশাল জনসভা।

 

তারা হলেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি এফবিসিসিআই পরিচালক ও সফল ব্যবসায়ী আমিনুল হক শামীম এবং তাঁর সহোদর মহানগর আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও সিটি কর্পোরেশন প্রশাসক ইকরামুল হক টিটু।

 

তরুণ প্রজন্মের অহংকার দুই সহোদর দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে সফলতা অর্জনে সচেষ্ঠ হয়েছেন। তাঁরা বিভাগের চার জেলা ও সকল উপজেলার দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে জনসভায় যোগ দেয়ার বিষয়ে মত বিনিময় করেছেন।
সদ্য ঘোষিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন প্রশাসক ও মহানগর আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ইকরামুল হক টিটু প্রধানমন্ত্রীর সফল জনসভার বিষয়ে বলেন, ‘এ সফলতা শুধু আমার একার নয়, দলের তৃণমূল থেকে শুরু করে সকল স্তরের জেলা ও মহানগরের নেতা কর্মীদের ঐকান্তিক সহযোগিতায়, প্রচেষ্ঠায় ও দিক নির্দেশনায় ঐতিহাসক সার্কিট হাউজ মাঠে জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে সক্ষম হয়েছি।’

 

‘তাই আমি বলি সকলের সফলতা। জনসভাকে কেন্দ্র করে শিক্ষানগরী ও দেশের অষ্টম বিভাগীয় শহর শুক্রবার ছিল লোকে লোকারণ্য। সকাল থেকেই সড়ক মহাসড়ক নেতা কর্মীদের আনয়নে ব্যস্ত ছিল সকল গনপরিবহনগুলো। নগরের সকল রাস্তা-ঘাট পরিপূর্ণ ছিল মিছিলে মিছিলে। মুখর ছিল স্লোগানে স্লোগানে। নেঁচে-গেয়ে সভাস্থলের দিকে ছুটেছেন সকলেই। ‘

 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের কণ্যা মানবতার অফুরান ভান্ডার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফলতা নিয়ে জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আমিনুল হক শামীম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহে আগমন সিদ্ধান্ত হওয়ার পর জনসভা সফল করতে জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের সাথে কয়েক দফা মতবিনিময় এবং বিভাগ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেছি।

 

‘বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ময়মনসিংহ বিভাগের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের সহযোগিতায় বিশাল এই কর্মযজ্ঞ সফল করতে পেরেছি। ঐক্যবদ্ধ থাকলে যে কোন কঠিন কাজে সফল হওয়া যায় শুক্রবারের সার্কিট হাউজের স্মরণ কালের জনসভা আবারো তা প্রমান করেছে’ বলে জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও এফবিসিসিআই পরিচালক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আমিনুল হক শামীম মন্তব্য করেছেন।

 

‘ময়মনসিংহের মাটি ও মানুষের নেতা সাবেক জেলা আওযামীলীগ সভাপতি ও সফল ধর্মমন্ত্রী আলহাজ্জ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান আমাদের সাথে রয়েছেন ও দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর সভাপতি এহতেশামূল আলম ও মোহিত উর রহমান শান্তসহ নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় এ সফলতা। এই ঐক্যবদ্ধতাকে সাথে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে আবারো নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে গোটা বিভাগে নৌকার জয় জয়কারে ভরে দিবো ইনশাআল্লাহ।’

 

বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দলের সিনিয়র নেতাদের কাছে দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ি স্মরণ কালের বিশাল জনসভা উপহার দেয়ায় ময়মনসিংহ বিভাগের জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোণা ও ময়মনসিংহ জেলাবাসীকে রাজনৈতিক অঙ্গনের মাঠ কাঁপানো দুই সহোদর ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

 

জনসভার পর আগত অনেকেই বলেন এই দুই সহোদরের কারনে বিশাল জনসভা সফলতা লাভ করেছে। আগামীতে তাঁদের হাতে আওয়ামী রাজনীতি সঠিক ও সুন্দরভাবে সংগঠিত হবে। তাঁরাই আগামী আওয়ামী রাজনীতি পরিচালনা করবেন বলে অনেকেই আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৪, ২০১৮