|

ময়মনসিংহে একরাতে একই স্কুলের ৩ শিক্ষার্থী নিখোঁজ

আনছারুল হক রাসেলঃ    একই রাতে ৩ শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নে পশ্চিম রামনগর ঘোনাপাড়া গ্রামে।

 

নিখোঁজ হওয়া স্কুল শিক্ষার্থীরা হল একই গ্রামের মিজানুর রহমানের কন্যা মার্জিয়া খাতুন (১৩), বছির উদ্দিনের কন্যা পলাশী (১৩), ও মোঃ হুমায়ুনের ছেলে দ্বিন ইসলাম ওরফে কালা (১১)। তারা একই রাতে নিখোঁজ হয়।

 

নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা সকলেই চরগোরকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলে জানান অভিভাবকগন। তাদের খোঁজা-খুজির পর না পেয়ে গত ২৩ সেপ্টেম্বর মার্জিয়ার পিতা মিজানুর রহমান হালুয়াঘাট থানায় একটি সাধরণ ডায়েরী করেন। নিখোঁজ হওয়া তিন শিক্ষার্থীর বাড়িতে এখন চলছে কান্নাকাটি।

 

গতকাল সরেজমিনে গিয়ে লোক লোকান্তরের প্রতিবেদকের কথা হয় মার্ঝিয়ার পিতা মিজানুর রহমানের সাথে। তিনি বলেন, গত ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় পাশের বাড়িরে পলাশী নামের মেয়েটি তার বাড়িতে বেড়াতে আসে। রাত ১২ টার সময় ঘরে না দেখতে পেয়ে তার মা পলাশীর বাড়িতে চলে যান। সেখানে পলাশীর কোন সন্ধ্যান না পাওয়ায় চলে হইচই।

 

তাৎক্ষনিভাবে প্রত্যেক পরিবারে সন্তানের খোঁজ নিয়ে দেখা যায় দ্বিন ইসলাম ওরফে কালাও নিখোঁজ। ঘটনার ১০ দিন পার হলেও এখনও তাদের সন্ধ্যান মিলছে না।

 

পলাশীর বাবা বাছির উদ্দিন বলেন, আমার মেয়ে পলাশী ৭ম শ্রেণির ছাত্রী। মেয়ে নিখোঁজের ঘটনায় উদ্বিগ্ন। দ্বীন ইসলামের পিতা মোঃ হুমায়ুন বলেন, তার ছেলে দ্বিন ইসলাম ওরফে কালা ৫ম শ্রেণির ছাত্র। ঘটনার দিন ছেলে দ্বিন ইসলাম নিজ ঘরে না ঘুমিয়ে পাশের ঘরে ঘুমানোর কথা বলে ঘর থেকে বেড়িয়ে যায়।

 

এ বিষয়ে হালুয়াঘাট থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি জিডি হয়েছে। দ্বীন ইসলামের সাথে থাকা মোবাইল নাম্বারটা বন্ধ থাকায় আমরা উক্ত নাম্বার ট্রেকিংয়ের জন্য পাঠিয়েছি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:১৯ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮