|

বিএনপির মানববন্ধনে লাঠিপেটা, হান্নান শাহের ছেলেসহ আটক ৯

লোক লোকান্তরঃ  বিএনপির মানববন্ধনে লাঠিপেটা ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। এ সময় মানববন্ধন থেকে প্রয়াত ব্রি. আ স ম হান্নান শাহের ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও সিটি কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ কমপক্ষে বিএনপির ৯ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

 

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গাজীপুরের মানববন্ধন থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় জেলা মহিলা দলের সাবেক সভানেত্রী আনোয়ারা বেগমসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

 

সোমবার বেলা ১১টার দিকে গাজীপুর মহানগর ও জেলা বিএনপির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে এ ঘটনা ঘটে।

 

গাজীপুর মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক শিল্পপতি মো. সোহরাব উদ্দিন জানান, বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আমাদের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মীদের নিয়ে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে শান্তিপূর্ণভাবে মানববন্ধন করছিলাম।

 

মানববন্ধনের শেষ মুহূর্তে হঠাৎ করে পূর্ব দিক থেকে পুলিশ ফাঁকা গুলি করে মানববন্ধনে অংশ নেয়া নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত লাঠিপেটা শুরু করে।

 

মুহূর্তেই নেতাকর্মীরা দিগ্বিদিক ছোটাছুটি করতে থাকেন। এ সময় নগরবাসী ও পথচারীদের মধ্যে অতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় পুলিশ প্রয়াত ব্রি. আ স ম হান্নান শাহের ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও সিটি কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে তুলে নিয়ে যায়।

 

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ জানান, ওই ঘটনায় পুলিশ ৯ জনকে আটক করেছে। আটককৃতদের মধ্যে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও সিটি কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ বাকিদের ভিডিও ফুটেজ দেখে যাচাই-বাছই করে কোর্টে চালান করা হবে।

 

ছবিঃ সংগৃহীত

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:০৮ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮