|

অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ আটক

লোক লোকান্তরঃ  অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদকে আটক করেছে র‌্যাব। শনিবার দুপুরে ফেসবুক লাইভে বক্তব্য দেয়াকে কেন্দ্র করে এ অভিনেত্রীকে রাতে উত্তরা থেকে আটক করা হয়।

 

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান। তিনি জানান, তাকে (অভিনেত্রী কাজী নওশাবা) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

 

এর আগে বিকালে ফেসবুক লাইভে কাজী নওশাবা বলেছিলেন, আমি কাজী নওশাবা আহমেদ, আপনাদের জানাতে চাই। একটু আগে ঝিগাতলায় আমাদেরই ছোট ভাইদের একজনের চোখ তুলে ফেলা হয়েছে এবং দুইজনকে মেরে ফেলা হয়েছে। আপনারা সবাই একসাথে হোন প্লিজ। ওদেরকে প্রোটেকশন দেন, বাচ্চাগুলো আনসেভ অবস্থায় আছে, প্লিজ। আপনারা রাস্তায় নামেন, প্লিজ রাস্তায় নামেন, প্লিজ রাস্তায় নামেন এবং ওদেরকে প্রোটেকশন দেন।’

 

‘সরকার প্রোটেকশন দিতে না পারলে আপনারা মা-বাবা, ভাই-বোন হয়ে বাচ্চাগুলোকে প্রোটেকশন দেন, এটা আমার রিকুয়েস্ট। এদেশের মানুষ-নাগরিক হিসেবে আপনাদের কাছে রিক্যুয়েস্ট করছি যে, ঝিগাতলায় একটি স্কুলে একটি ছাত্রের চোখ তুলে ফেলা হয়েছে এবং দুইজনকে মেরে ফেলা হয়েছে এবং ওদের অ্যাটাক করা হয়েছে। ছাত্রলীগের ছেলেরা সেটা করেছে। প্লিজ ওদের বাঁচান প্লিজ। তারা ঝিগাতলায় আছে।’

 

তবে ওই ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়নি। প‌রে ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর খবর‌টি গুজব বলে জানান।

 

কিন্তু ইতিমধ্যে অভিনেত্রী নওশাবার লাই‌ভ ভি‌ডিও‌টি অল্প সম‌য়ের ম‌ধ্যে ভাইরাল হ‌য়ে যায়। এ বিষ‌য়ে নওশাব‌ার স‌ঙ্গে যোগা‌যোগ করা হ‌লে তি‌নি ব‌লেছি‌লেন, ‘ সে সময় আমি ধানমণ্ডিতে ছিলাম না, ছিলাম উত্তরায়। এক বন্ধুর কাছ থেকে ঘটনাটি শুনেই লাইভ আ‌সি। খবর‌টি শোনার পর ভীষণ আত‌ঙ্কিত হ‌য়ে গি‌য়ে‌ছিলাম।

 

আন্দোলনের শুরু থেকেই শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে ছিলাম। তাদের কয়েকজনের সঙ্গে পরিচয়ও ছিল। এদেরই একজন আমাকে ফোন দিয়ে এই খবরটি জানায়। এরপর লাইভে ঘটনাটি সবাইকে জানিয়েছি। আমি এর বেশি আর কিছু বলতে পারব না।’

সর্বশেষ আপডেটঃ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৪, ২০১৮