|

কুকুর জীবন্ত মাটিচাপা দিয়ে হত্যার দায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড

লোক লোকান্তরঃ  দুটি মা কুকুর ও ১৪টি কুকুরছানাকে জীবন্ত মাটিচাপা দিয়ে হত্যার দায়ে ছিদ্দিক (৪৫) নামের এক নিরাপত্তা প্রহরীর ছয় মাসের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত।

 

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ আহসান হাবীব এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আসামির ২০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো সাত দিন কারাভোগের আদেশ দেয়া হয়।

 

রায় ঘোষণার সময় আসামি অনুপস্থিত থাকায় তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা ইস্যু করে আদালত।

 

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার ওসমানগঞ্জের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের (আজিম উদ্দিন হাওলাদার বাড়ি) মৃত দুলাল মিয়ার ছেলে ছিদ্দিক রাজধানীর রামপুরার বাগিচারটেক কল্যাণ সমিতির নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কর্মরত।

 

এ মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিনু রানী রায় বলেন, ১৯২০ সালের প্রাণীর ওপর প্রতিনিষ্ঠুরতা আইনের ৭ ধারায় আদালতে এই দণ্ড দেন। ওই ধারায় সর্বোচ্চ সাজা ছয় মাসের কারাদণ্ড।

 

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, বাগিচারটেক কল্যাণ সমিতির নিরাপত্তা প্রহরী ছিদ্দিক ২০১৭ সালের ২৫ অক্টোবর রাত ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে বাগিচারটেক ৩৫/২ নং বাড়ির পাশের খালি প্লটে থাকা দুটি মা কুকুর ও এদের ১৪টি বাচ্চাকে লোহার রড দিয়ে পেটান। মা কুকুর দুটিকে অর্ধমৃত করে পেছনের পা বেঁধে এবং কুকুরের বাচ্চাগুলো বস্তায় ভরে বাড়ির পাশে মাটিচাপা দেন।

 

এ ঘটনায় ২০০৭ সালের ১ নভেম্বর পিপল ফর অ্যানিমেল ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডার চেয়ারম্যান রাকিবুল হক এমিল রামপুরা থানায় বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের পর রামপুরা থানার এসআই নাছির উদ্দিন ওই বছরের ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

 

চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল আসামির বিরুদ্ধে চার্জগঠন করে আদালত। মামলার বিচারকাজ চলাকালে চার্জশিটভুক্ত ১৫ সাক্ষীর মধ্যে ৬ জনের সাক্ষ্য নেয়া হয়।

 

ছবিঃ প্রতীকী

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:০৬ অপরাহ্ণ | মে ১০, ২০১৮