|

শেরপুরে বজ্রপাতে স্কুলছাত্রী, কৃষক, যুবকসহ ৪ জনের মৃত্যু

লোক লোকান্তরঃ  শেরপুরে বজ্রপাতে স্কুলছাত্রী, কৃষক, যুবকসহ চার জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিভিন্ন সময় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়।

 

জানা যায়, সকালে প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে শারমিন নামে এক স্কুলছাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

শারমিন নালিতাবাড়ী উপজেলার পাঘারিয়া মির্জাবাজার গ্রামের হাফেজ সোহেল মিয়ার মেয়ে। সে এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

 

বেলা ১১টার দিকে শেরপুর সদর উপজেলার হালগড়া গ্রামে আব্দুর রহিম নামে এক কৃষক মাঠে ধান কাটা অবস্থায় বজ্রপাতে মারা যান। তিনি উপজেলার হালগড়া গ্রামের আকু শেখের ছেলে।

 

এদিকে সকাল পৌনে ১০টার দিকে নকলা উপজেলার মোজারচর গ্রামে শহিদুল ইসলাম নামে এক যুবক মাঠ থেকে বাড়ি ফেরার পথে বজ্রপাতে মারা যান। শহিদুল ইসলাম নকলা উপজেলার মোজারচর গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে।

 

অন্যদিকে, জেলার শ্রীবরদী উপজেলার বকচর গ্রামে সকাল ১১টার দিকে কুব্বত আলী নামে এক কৃষক ধান কাটার সময় বজ্রপাতে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত মো. আনিসুর রহমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

ছবিঃ সংগৃহীত

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:২৮ অপরাহ্ণ | মে ০৭, ২০১৮