|

ময়মনসিংহে ছেলের হাতে মার খেয়ে পিতার আত্মহত্যা

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ  ছেলের মারধর সইতে না পেরে আব্দুল বাতেন নামে এক বৃদ্ধ পিতার বিষপানে আত্মহত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

৬ মে, রোববার সকালে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার কাশিমপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। পরে বিকেলে থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

 

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের আতরের মোড় এলাকার বাসিন্দা আব্দুল বাতেন। তার তিন ছেলে রয়েছে। তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগমকে ৩ বছর আগে তালাক দেয়। এ নিয়ে ছেলেদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে আব্দুল বাতেনের মনোমালিন্য চলছিল।

 

রোববার সকাল ৭টার দিকে তার মেঝো ছেলে সারওয়ার হোসেনের সাথে ধানের খড় শুকানো নিয়ে এ দিনও কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনায় ছেলে সারওয়ার হোসেন ষাট বছরের বৃদ্ধ বাবা আব্দুল বাতেনকে মারধর করে। পরে ছেলের হাতে মার সইতে না পেরে আব্দুল বাতেন বসত ঘরের দরজা বন্ধ করে বিষ পান করে।

 

খবর পেয়ে বাড়ির লোকজন ঘরের বেড়া কেটে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।তবে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

 

আব্দুল বাতেনের ছোট ভাই মিরাজ আলী বলেন, তার ভাই আব্দুল বাতেনের সাথে ছেলেদের দীর্ঘদিন ধরে বনিবনাত হচ্ছিল না। ঘটনার দিনও তার মেঝো ছেলে সারওয়ার হোসেনের সাথে হাতাহাতি হয়। এর পরই সে ঘরের দরজা বন্ধ করে বিষপান করে।

 

মুক্তাগাছা থানার ওসি (তদন্ত) শাহ নেওয়াজ লোক লোকান্তরকে বলেন, বাবা ছেলের সাথে বিরোধ থাকায় বিষয়টি সন্দেহ হওয়ায় আব্দুল বাতেনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তেন জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৪৮ অপরাহ্ণ | মে ০৬, ২০১৮