|

রাজধানীর একটি মেস থেকে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার

লোক লোকান্তরঃ  একটি তালাবন্ধ মেস থেকে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম রিপন। সে সম্প্রতি একটি হত্যা মামলায় জামিনে জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন।

 

রাজধানী ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানার পাশের  বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ তালা ভেঙ্গে রিপনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

 

জানা যায়, সোলায়মান নামে এক ব্যক্তি ওই মেসঘরটি ভাড়া নিয়ে থাকেন। তার বাড়ি কুমিল্লায়। কেরানীগঞ্জে রিকশা চালানোর পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। ঘটনার পর সোলায়মান পলাতক রয়েছে।

 

নিহত রিপনের স্ত্রী খুশি বেগম জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে বাসা থেকে রিপনকে ডেকে নিয়ে যায় সোলায়মান। এরপর আর সে ফেরেনি। বাসা থেকে বেরোনোর পর মোবাইলও বন্ধ পাওয়া যায়।

 

তিনি আরও জানান, সোলায়মানের সঙ্গে কয়েকদিন পূর্বে রিপনের ঝগড়া হয়েছিল। এছাড়াও রিপনকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে গেছে-এতে তাদের ধারণা, সোলায়মান পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

 

স্থানীয়রা জানান, থানার অদূরে হাফেজ রোড এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন রিপন। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক তিনি। রিপন ইয়াবাসেবী ছিলেন। মাঝ মধ্যে পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতেন তিনি। পাশাপাশি নাইটগার্ডের কাজও করতেন রিপন।

 

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যোবায়ের জানান, রিপন সারারাত বাসায় না ফেরায় বৃহস্পতিবার রাতে তার স্ত্রী থানায় এসে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে। ওই মেস ঘরে গেলে দরজা তালাবন্ধ পাওয়া যায়। এসময় তালা ভেঙ্গে ঘরের ভেতর রিপনের গলাকাটা লাশ পাওয়া যায়।

 

তিনি জানান, ঘটনাস্থলে ইয়াবা খাওয়ার সরঞ্জাম ছড়ানো ছিটানো রয়েছে। এতে ধারনা করা যাচ্ছে, নিহত রিপনসহ ঘাতকরা প্রথমে ইয়াবা খেয়েছে। তারপর রিপনকে গলাকেটে হত্যা করেছে। ঘটনার পর সোলায়মান পলাতক রয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫৩ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ২৭, ২০১৮