|

কারাবাস থেকে বেরিয়ে প্রথম টুইট যা লিখলেন সালমান

লোক লোকান্তরঃ   কৃষ্ণসার হত্যা মামলার চূড়ান্ত রায়ে পাঁচ বছর কারাবাসের শাস্তি পান সালমান খান। সেই জেরে ৪৮ ঘণ্টা জেলহাজতে কাটাতে হয় তাকে। এরপর জামিনে মুক্ত হন বলিউডের এ জনপ্রিয় অভিনেতা।

 

বলাই বাহুল্য, এই দুই দিন ভীষণ খারাপ কেটেছে সালমানের। মুক্তির পর মুম্বাই এসে বাড়ির সামনে জড়ো হওয়া ভক্তদের সঙ্গে দেখাও করেন তিনি। সোমবার সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিকেলে একটি টুইট করেছেন তিনি।

 

বলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রীসহ অসংখ্য অনুরাগী ও ভক্তদের উদ্দেশে টুইটারে কৃতজ্ঞতা জানান সালমান খান। তিনি লিখেছেন, ‘কৃতজ্ঞতার অশ্রু ঝরছে। যারা আমাকে ভালোবাসেন এবং যারা আমার ওপর থেকে আশা হারাননি, তাদের সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। ভালোবাসা ও সমর্থন জুগিয়ে আমার পাশে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আল্লাহ সহায় হন।’

 

গত ৫ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার কৃষ্ণসার হত্যা মামলায় সালমান খানের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হলেও সেই সঙ্গে বাকি অভিযুক্ত টাবু, সাইফ আলি খান, সোনালি বেন্দ্রে ও নীলমকে বেকসুর খালাস করে দেয় আদালত। রায় ঘোষণার দু’দিন পর দেশ না ছাড়ার শর্তে ৫০ হাজার রুপি ব্যক্তিগত বন্ড সই করে জামিন লাভ করেন ‘দাবাং’ নায়ক।

 

জামিনের পর বোন আলভিরা ও অর্পিতার সঙ্গে মুম্বাই ফেরেন সালমান। জেল থেকে ফেরার পর তার সঙ্গে দেখা করতে সালমান খানের বাড়িতে তারকার ঢল নামে।

 

ক্যাটরিনা কাইফ, বরুণ ধাওয়ান, ‘রেস ৩’ সিনেমার কলাকুশলী এবং অন্যান্য তারকা আসেন তার সাথে দেখা করতে। সোমবার সালমান তার সহ-অভিনেতা সাকিব সেলিমের জন্মদিনের অনুষ্ঠানেও উপস্থিত হন।

 

১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ সিনেমার শুটিংয়ে রাজস্থানের কঙ্কনি গ্রামে কৃষ্ণসার শিকার করার অভিযোগ দায়ের করে বিষ্ণোই সম্প্রদায়। তাদের মতে, প্রাণী হত্যা মহাপাপ। এ ছাড়া কৃষ্ণসার হরিণকে তারা ভাগ্য-দেবতা ভেবে পূজা করে থাকেন। আপাতত জামিন পেলেও সালমানকে আগামী মে মাসের ৭ তারিখে যোধপুর আদালতে হাজিরা দিতে হবে।

 

আরও পড়ুনঃ  সালমানের সঙ্গে কাজ করতে চান না যেসব অভিনেত্রী!

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ১০, ২০১৮