|

ময়মনসিংহে বাস চাপায় নারীর মৃত্যু, বাসে আগুন

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ  ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে যাত্রীবাহি বাসের চাপায় এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। প্রতিবাদে উত্তেজিত জনতা বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের ওপর মগটুলা ইউনিয়নের বৈরাটি এলাকায় ওই ঘটনাটি ঘটে।

 

জানা যায়, উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের বাঘবেড় আবদুল্লাপুর গ্রামের ধান-চালের ব্যবসায়ী মতিউর রহমানের স্ত্রী শিউলি আক্তার (৪২)। গত বুধবার রাতে মতিউর রহমানের বড়ভাই মোসলেম উদ্দিন মারা যান।

 

মৃত্যুর খবর পেয়ে মতিউর রহমানের ছেলে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মেহেদী হাসান তুহিন চাচার লাশ দেখতে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। মাকে নিয়ে মাইজবাগ বাজারের বাসা থেকে বৃহস্পতিবার গ্রামের বাড়ি উপজেলার বাঘবেড় আব্দুল্লাপুর যাচ্ছিলেন।

 

মাইজবাগ বাজার থেকে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা দিয়ে ছেলে মেহেদী হাসান তুহিনের সাথে বাড়ি যাওয়ার পথে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কের ওপর বৈরাটি গোরস্থান মাদ্রাসার কাছে অটোরিকশা থেকে পড়ে যান শিউলি আক্তার। ওই সময় কিশোরগঞ্জগামী এমকে সুপার নামের একটি বাস তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। পরে বিক্ষুব্ধ লোকজন বাসটিতে ভাংচুর চালিয়ে তাতে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

 

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মাওলা বলেন, ইজিবাইক থেকে পড়ে গিয়ে নারীর মৃত্যু হয়েছে। এতে উত্তেজিত হয়ে লোকজন বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৬, ২০১৮