|

চুরির অভিযোগে শিশু নির্যাতন

লোক লোকান্তর: বরিশালের মুলাদী উপজেলায় মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে শাওন নামে ১৩ বছরের এক দরিদ্র শিশুকে প্রচণ্ড নির্যাতন করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটক হয়েছে দুইজন। নির্যাতনের ঘটনায় যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

২১ অক্টোবর চর শফিপুর গ্রামের সমিতির হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।শিশুটির হাত বেঁধে নির্যাতনের সময় দৃশ্যটি সেখানে উপস্থিত কেউ একজন মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ধারণ করে। পরে ওই ভিডিওতে দেখা যায়- বিভিন্ন বয়সের ২৫/৩০ জন মানুষের উপস্থিতিতে জনৈক ব্যক্তি তাকে কাঠ দিয়ে পেটাচ্ছে এবং শিশুটি চিৎকার করছে।

 

এই ভিডিওটি বাংলাদেশ আইন সহায়তা কেন্দ্র ফাউন্ডেশন বরিশালের উপ-পরিচালকের (বাসক) হাতে পৌঁছুলে তিনি বরিশালের পুলিশ সুপার বরাবরে এ ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

 

অভিযোগে বলা হয়, শাওন চর শফিপুরের নানাবাড়িতে এসেছিল। মোবাইল চুরির অভিযোগে তাকে স্থানীয় কিছু লোক নির্মম নির্যাতন করে। তার বাবা নেই। মা ঢাকায় গৃহ পরিচারিকার কাজ করে।

 

এ অবস্থায় বিষয়টি আমলে নিয়ে শাওনকে খুঁজে বের করা এবং নির্যাতনকারীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানিয়েছেন বাসক-এর উপ-পরিচালক।

 

পুলিশ সুপার অভিযোগ পেয়ে মুলাদী থানার ওসিকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিলে বুধবার রাতে সবুজ ও মহসিন নামে দুজনকে আটক করে পুলিশ।এদিকে বৃহস্পতিবার মুলাদী থানায় এ ব্যাপারে বাংলাদেশ আইন সহায়তা কেন্দ্র ফাউন্ডেশন বরিশালের উপ-পরিচালক সোহেল সরদার বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

 

পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। পাশাপাশি আটক করা হয়েছে দুইজনকে। এছাড়া প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:৪১ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৬, ২০১৭