|

রাজশাহীর আম ইউরোপের ৬ দেশে রপ্তানি করা হবে 

লোক লোকান্তরঃ   মৌসুমী ফল হিসেবে প্রসিদ্ধ রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আম গত বছর থেকে ইংল্যান্ড, সুইডেন, ফ্রান্স, নরওয়ে, পুর্তগাল এবং রাশিয়ায় আম রপ্তানির প্রক্রিয়া শুরু হয়। এ বছর ইউরোপের ছয়টি দেশেও রপ্তানি হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

হরটেক্স ফাউন্ডেশন ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ যৌথভাবে এই উদ্যোগ গ্রহণ করে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাবিনা বেগম বলেন, আম রপ্তানির জন্য পঞ্চাশ জন বাগান মালিককে তালিকাভুক্তির পর সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। এর আগে কৃষি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় তারা নিরাপদ ও বিষমুক্ত আম ফলনের প্রশিক্ষণ নেন।

 

এ বছর রাজশাহী থেকে বিদেশের বাজারে প্রায় একশ টন আম রপ্তানি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ (ডিএই)-র উপপরিচালক দেব দুলাল ঢালী বলেন, আমগুলো আধুনিক ব্যাগিং প্রযুক্তির মাধ্যমে উৎপাদন করা হয়েছে। গত বছর এই প্রযুক্তিতে উৎপাদিত ৩০ টন আম ইউরোপের বিভিন্ন বাজারে রপ্তানি করা হয়েছে।

 

কৃষিবিদ ঢালী বলেন, গত কয়েক বছর যাবত ব্যাগিং পদ্ধতিতে ফল উৎপাদন বেড়ে চলেছে। এই পদ্ধতিতে আম উৎপাদিত হলে কোনো রকম কীটনাশকের প্রয়োজন হবে না। ফলে আমগুলো বিষমুক্তভাবে বৃদ্ধি পাবে।

 

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুল ইসলাম বলেন, ‘ইউরোপের সুপারশপে বাঘার আম বিক্রির ব্যাপারে আমি সত্যিই কৌতুহলি এবং এর মাধ্যমে ইউরোপের অন্যান্য সুপারশপেও দেশের আম রপ্তানির জন্য নতুন দার উন্মোচিত হবে। আম রপ্তানির ফলে দাম ভালো পাওয়ায় চাষিদের জীবনমানের উন্নয়ন হবে।’

 

 

আম রপ্তানির ব্যাপার রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর সভাপতি মো. মুনিরুজ্জামান বলেন, এটা কোনো দান বা সহায়তা নয়, এটি সম্পূর্ণ একটি বাণিজ্যিক বিষয়। তিনি বলেন, আমের সুনাম অক্ষুণ্ন রাখতে চাষিদের ভালো মানের আম উৎপাদন করতে হবে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:১৯ অপরাহ্ণ | জুন ০৩, ২০১৭