|

ময়মনসিংহে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ‘বইপড়া’ কর্মসূচি শুরু

স্টাফ রিপোর্টার: বই পড়ার মাধ্যমে আলোকিত মানুষ গড়ার লক্ষ্যে ময়মনসিংহে বইপড়া কর্মসূচির যাত্রা শুরু করলো বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র।

 

রোববার দুপুরে মোবাইল ফিনান্সসিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ লিমিটেডের সহায়তায় মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পরিচালক ও উপ-সচিব জনাব শরিফ মোঃ মাসুদ এবং বিকাশ লিমিটেডের হেড অব কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ক্যাপ্টেন (অবঃ বি.এন) জনাব সাবের শরিফ ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে বই তুলে দিয়ে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত বিদ্যালয়ের রেক্টর ও অধ্যক্ষ আমীর আহাম্মদ চৌধুরী (রতন), শিক্ষক শ্রী বাবুল কান্তি সরকার, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচির ডেপুটি টিম লিডার জনাব মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ সুমন, ইউনিট ইনচার্জ রবিউল ইসলাম প্রমুখ।

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পরিচালক ও উপ-সচিব জনাব শরিফ মোঃ মাসুদ বলেন, “দেশে আলোকিত মানুষ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র গত ৩৯ বছর ধরে সারাদেশে স্কুল ও কলেজ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নানাবিধ উৎকর্ষ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। দেশভিত্তিক উৎকর্ষ (বইপড়া) কার্যক্রম এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কর্মসূচি। বর্তমানে সারাদেশে এই কর্মসূচির আওতায় প্রায় ২ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২ লাখ ছাত্র-ছাত্রী অর্ন্তভুক্ত রয়েছে।”

 

বিকাশ লিমিটেডের হেড অব কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স ক্যাপ্টেন (অবঃ বি.এন) জনাব সাবের শরিফ বলেন, “বিকাশ মনে করে বইপড়া মানুষ তাদের প্রসারিত দৃষ্টিভঙ্গির মাধ্যমে সমাজকে আলোকিত করতে পারে। নানা ক্ষেত্রে অবদান রাখার মাধ্যমে ভূমিকা রাখতে পারে দেশের উন্নয়নে। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের এই বইপড়া কর্মসুচির মাধ্যমে ‘আলোকিত মানুষ’ ও ‘উন্নয়ন’ কে একই সূত্রে গাঁথতে বিকাশ আন্তরিকভাবেই সহায়তা করবে।”

 

তিনি জানান, স্কুল ও কলেজ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পরিচালিত বইপড়া কর্মসুচি ‘দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম’ এর সাথে ২০১৪ সাল থেকেই সম্পৃক্ত আছে বিকাশ। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বইপড়া কর্মসূচিতে ২০১৭ সালে ৩৮ হাজার বইসহ গত ৪ বছরে এ পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটি প্রায় ১ লাখ ৪০হাজার কপি বই প্রদান করেছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ | মে ০১, ২০১৭