|

নেত্রকোনা’তে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপী ইজতেমা

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ  নেত্রকোনায় শুরু হচ্ছে তাবলীগ জামাতের তিনদিন ব্যাপী জেলা ইজতেমা। বৃহস্পতিবার থেকে নেত্রকোনা পৌর এলাকার মার্কাজ সংলগ্ন গজীনপুর এলাকায় এই ইজতেমা শুরু হবে।

 

তাবলীগ জামাতের মুরুব্বী মোঃ রফিকুল ইসলাম খান জানান, তিন দিন ব্যাপী জেলা ইজতেমা উপলক্ষ্যে নেত্রকোনা পৌর এলাকার মার্কাজ সংলগ্ন গজীনপুর এলাকায় প্রায় ৪০ একর জায়গা জুড়ে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে নির্মাণ করা হয়েছে বিশালাকার প্যান্ডেল। পুরা প্যান্ডেল এলাকাকে ১১টি খিত্তায় ভাগ করা হয়েছে। ইজতেমায় আগত ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের জন্য সুপীয় পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

বিদেশী মেহমানদের জন্য উন্নত মানের বিশেষ প্যান্ডেলের ব্যবস্তা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাদ ফজর থেকে আম বয়ানের মাধ্যমে তাবলীগ জামাতের জেলা ইজতেমা শুরু হবে। ইজতেমায় দেশবরেণ্য আলেম ওলামাগন ইমান, আকিদা, আকলাখ ও আল্লাহর নৈকট্য লাভের করণীয় সম্পর্কে বয়ান করবেন। শনিবার সকাল ১১টার আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে ইজতেমা শেষ হবে।

 

প্যানেল মেয়র আমীর বাশার বলেন, জেলা ইজতেমাকে সফল করতে নেত্রকোনা পৌরসভার পক্ষ থেকে ইজতেমা স্থলের আশপাশের রাস্তাঘাট সংস্কার, প্যান্ডেলের চারপাশে লাইট ও পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

ইজতেমায় দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী পুলিশ সুপার (ইনসার্ভিস) মোঃ আনিছুর রহমান খান বলেন, ইজতেমাকে সফল করতে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে ইজতেমাস্থলে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এছাড়াও চারটি ওয়াচ টাওয়ার থেকে পুরো এলাকা পুলিশের কঠোর নজরদাবীতে রাখা হবে। মুসল্লীরা যাতে নির্বিঘ্নে ইজতেমাস্থলে আসতে পারে এবং ইবাদত বন্দেগীতে মশগুল থাকতে পারে তার জন্য প্রায় ৬ শতাধিক পুলিশ, আমর্ড পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও সাদা পোষাকে পুলিশ সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবে।

 

নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান বলেন, ইজতেমা সফল করতে ইতিমধ্যে সকল বিভাগের সাথে কয়েকবার সমন্বয় সভা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইন শৃংখলা রক্ষায় ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োগের পাশাপাশি আগত মুসল্লীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ১১:০৯ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২৫, ২০১৭