|

২০২১ সালের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন হবে- ময়মনসিংহে শ্রম প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ    শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক বলেছেন, ২০২১ সালের মধ্যে দেশ থেকে ঝুকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন করা হবে এবং ২০২৫ সালের মধ্যে দেশে শিশুশ্রম বন্ধ হবে। এ বিষয়ে আমরা নানাভাবে জনসচেতনতা চালিয়ে যাচ্ছি। যে সকল এলাকায় শিশুশ্রম বেশী, সেসব এলাকা টার্গেট করে নানা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের পুনর্বাসন করা হবে। এজন্য সরকার টেকনিক্যাল শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও ঋণ সহায়তার মতো প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের একটি স্থানীয় হোটেলে বিভাগীয় কমিশন এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিভাগীয় পর্যায়ে শিশুশ্রম নিরসনে উদ্ভুদ্ধকরণ বিষয়ে কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন।

 

এসময় ময়মনসিংহ-৮ আসনের সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম, বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন, রেঞ্জ ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ সরকারী কর্মকর্তা, এনজিও প্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক বলেন, শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করছে বর্তমান সরকার। চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে কোনো গার্মেন্টস কর্মী মারা গেলে শ্রম কল্যান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে নিহতের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা প্রদান করা হবে। এই অর্থের একটি অংশ আসবে বিভিন্ন কোম্পানির রপ্তানি আয় (শতকরা তিন পয়সা) থেকে।

 

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে গার্মেন্টেসের একলাখ শ্রমিককে প্রভিডেন্ট ফান্ডের আওতায় আনা হচ্ছে। ঢাকা ও নারায়নগঞ্জের ৬০ হাজার শিশুকে প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাবলম্বি করা হয়েছে। বর্তমান সরকার গৃহ পরিচারিকাদের জন্য একটি নীতিমালা তৈরী করেছে, যারা গৃহপরিচারিকা নিয়োগ দেন, তাদের এই নীতিমালা অনুসরণ করার আহবান জানান।

 

মজিবুল হক বলেন, দরিদ্র শ্রমিকদের মেধাবি ছেলে-মেয়েদের মেডিকেল ও ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার জন্য ৩ লাখ টাকা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার জন্য ৫০ হাজার টাকা বৃত্তি প্রদান করা হবে।

 

ছবিঃ লোক লোকান্তর

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৩৮ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ২০, ২০১৭