|

ময়মনসিংহে সন্দেহভাজন দুই নারীর লিফলেট বিতরণ (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরায় সন্দেহভাজন দুই নারীর লিফলেট বিতরণের দৃশ্য ধরা পড়ে প্রতিষ্ঠানের। সিসি ক্যামেরায় সন্দেহভাজন দুই নারী জঙ্গী হওয়ার আশঙ্কা নিয়ে স্থানীয়সহ আশেপাশের লোকজনদের মাঝে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

 

ঘটনার সূত্রপাত গত শনিবার ঈশ্বরগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। কলেজের মাঠে সবাই যখন বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত তখন নবম শ্রেণির কক্ষে প্রবেশ করে বোরখা পড়া দুই নারী।

 

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, তারা শিক্ষার্থীদের বইয়ের ভিতরে ও ব্যাগের নিচে লিফলেট রাখছে। কাজটি তারা করছে গোপনে ও খুব দ্রুত গতিতে। এ কাজে কক্ষে একজন লিফলেট রাখছিল আর একজন পাহাড়া দিচ্ছিলো। টের পেয়ে শিক্ষকরা তাদের ধরতে গেলে কৌশলে পালিয়ে যায় তারা।

 

সেসময় ক্লাসরুমে থাকা শিক্ষার্থীরা জানান, ‘বোরখা পড়া দুইজন তাদের ক্লাসরুমে ঢুকে বলছিল তোমরা তো জেএসসি পাশ করছো তাই তোমাদের অভিনন্দন জানাতে আসলাম। একথা বলার পর কিছু লিফলেট বইয়ের ভিতর ও ব্যাগের ভিতর রেখে সেসব পড়ার জন্য বলে রুম থেকে চলে যায় তারা।’

 

‘আবহ ফাউন্ডেশন’ নামে এই লিফলেটে লেখা আছে বিশ্বের মুসলিম দেশ গুলোর নির্যাতনের কথা। আছে বাংলাদেশ সরকার বিরোধী নানান বক্তব্য এবং এসব থেকে মুক্তি লাভসহ আইন কানুন, রাজনীতি সকল বিষয়ে ইসলামের বিধান অনুযাযয়ি কাজ করার আহবান।

 

স্থানীয়দের ধারনা, জঙ্গীদের দলে ভিড়াতে নতুন কৌশল হাতে নিয়েছে নারী জঙ্গী সংগঠন। এবার তাদের টার্গেট গ্রাম অঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীরা। এরই লক্ষ্যে মহিলা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে খুবই গোপনে বিতরণ করছে তাদের লিফলেট।

 

ঈশ্বরগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মাহির উদ্দিন তালুকদার জানান – নারী জঙ্গী লিফলেটগুলো বিতরণ করতে পারে এমন সন্দেহে পুলিশকে পুরো বিষয়টি অবাগত করা হয়েছে। আমরাও যথা সাধ্য রহস্য বের করার চেষ্টা করছি চলেছি।

 

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মোহাম্মদ বদরুল আলম খান জানান, বিষয়টি জানার পর আমরা এ বিষয়ে তদন্ত করে দেখছি।

 

 

সর্বশেষ আপডেটঃ ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ১৭, ২০১৭