|

নেত্রকোনায় স্কুলছাত্রী লাঞ্ছনাকারী কারাগারে

netrakona-pic-06-10-16

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ  জেলার শ্যামগঞ্জ জালশুকা কুমুদগঞ্জ হাইস্কুলের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে লাঞ্ছনার অভিযোগে দায়ের করা মামলার প্রধান আসামী শাহাদাত হোসেনকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এ হাজির হলে বিজ্ঞ বিচারক মাহামুদুল মহসিন জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

জানা গেছে. জেলার শ্যামগঞ্জের জালশুকা কুমুদগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের অস্টম শ্রেণির এক ছাত্রী ও তার বাবাকে মঙ্গলবার মারধর করে শাহাদাত গোসেন ও তার সঙ্গীরা। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমীন বাদী হয়ে বুধবার শ্যামগঞ্জ হাফেজ জিয়াউর রহমান কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র শাহাদাত হোসেন ও আবুল খায়েরর নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৪-৫জনকে আসামী করে পূর্বধলা থানায় মামলা করেন। পুলিশ আবুল খায়েরকে ওই দিই গ্রেফতার করে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-১ এ হাজির হয়ে জামিন প্রার্থণা করে। বিজ্ঞ বিচারক মাহামুদুল মহসিন তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ ছাড়া পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সোহেল ও রুবেল মিয়াকে বুধবার গ্রেফতার করে। এদিকে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং স্কুলে যাওয়া আসার পথে ছাত্রীদের নিরাপত্তা দেয়ার দাবীতে পূর্বধলা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ক্লাস বর্জণ করে স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে।
নেত্রকোনার পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী বলেন, শাহাদাত হোসেন আদালতে আত্মসমর্পন করলে আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩০ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৬, ২০১৬