|

ফাতেমা নগর স্কুলের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে এড জহিরুল হক

জঙ্গিবাদের নামে দুষ্টচক্র উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করার অপচেষ্ঠা করছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ   ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক বলেছেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে দক্ষিণ এশিয়ায় স্থান করে নিয়েছে। অসম্প্রদায়িক দেশ হিসাবে বিশ্বে পরিচয় পেয়েছে। নিম্ন আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশ হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নত দেশ হতে চলছে। জঙ্গিবাদের নামে আইন শৃংখলার অবনতি ঘটিয়ে কতিপয় দুষ্টচক্র উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থসহ দেশে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার অপচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষক, অভিভাবকসহ সকল মহল ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ সকল দুষ্টচক্রকে প্রতিহত করতে হবে। ত্রিশালের ফাতেমা নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন, জঙ্গিবাদ সন্ত্রাস সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী সমাবেশ ও শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এড জহিরুল হক উপরোক্ত কথা বলেন।

 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কুমার তরফদারের সভাপতিত্বে সহকারী শিক্ষক আশরাফ আহম্মেদ ও ওমর ফারুকের পরিচালনায় প্রদান অতিথি শিক্ষক ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, ভাল পাঠদানের পাশাপাশি মানসিকভাবে তাদেরকে গড়ে তুলতে হবে। শিক্ষার্থী ও সন্তানরা কে কোথায় কাদের সাথে চলাফেরা করছে তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। মনে রাখতে হবে সন্তান আল্লাহর নিয়ামত। শুধু জন্মদাতা হলেই চলবে না। সন্তানের পিতামাতা হতে হবে।

 

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, জঙ্গিবাদ অভিশপ্ত। দেশ থেকে অভিশপ্তমুক্ত করতে জননেত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব নিয়েছেন। যা আইন শৃংখলা বাহিনী পালন করছেন।

সভায়,সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজের অধ্যক্ষ বলেন, ভাল সনদের আশায় লেখাপড়া করলে চলবে না। দেশের প্রতি মমত্ববোধ নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে।

আওয়ামীলীগ নেতা আহম্মদ আলী আকন্দ বলেন, জঙ্গিবাদ নিরসনে সকল মহলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দায়িত্ব নিতে হবে।

ত্রিশাল থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, অভিভাবকসহ সকল মহল ঐক্যবদ্ধ ও সচেতন না হলে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা সম্ভব নয়।

 

সভায় ত্রিশাল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মন্ডল, কাঠাল ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন কামাল, জেলা যুবলীগ নেতা বজলুর রশিদ নাসিম, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আসলাম উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা হুমায়ুন কবির হিমেল ও মাজহারুল হক শাহজাহান বক্তব্য রাখেন। এর আগে এড জহিরুল হক নেতৃবৃন্দকে নিয়ে জেলা পরিষদের অর্থায়নে ১৫ লাখ টাকা ব্যয়ে বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন। এ সময় জেলা পরিষদের উপ সহাকারী প্রকৌশলী আব্দুর রউফ, ডিএমও মামুন সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:১৩ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ০৬, ২০১৬