|

সর্বশেষ

ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহন

স্টাফ রিপোর্টারঃ    ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড স্থাপিত হচ্ছে। সদ্য ঘোষিত ময়মনসিংহ বিভাগে দেশের ১১তম শিক্ষাবোর্ড হিসেবে ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ ব্যাপারে প্রাথমিক  সম্ভাব্যতা যাচাই বাচাইয়ের  জন্য  ৭সদস্যের  একটি  কমিটি করা হয়েছে।সরেজমিন জরিপ চালিয়ে তাদের আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
গত ১৪ আগষ্ট-২০১৬ রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক জরুরি সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সময়ের চাহিদা অনুযায়ী ময়মনসিংহে শিক্ষা বোর্ড স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান ও সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নূরুল আমীন কালাম, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এফ.এম এ সালাম ও  সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম ।
আগামী বছর থেকে নয়াশিক্ষা বোর্ডের অধীনে সমস্ত পরীক্ষা নেয়াসহ দ্রুত বোর্ড স্থাপন সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৪ই সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহকে বিভাগে রূপান্তর করা হয়। এরপর থেকে সেখানে শিক্ষাবোর্ড স্থাপনের দাবি ক্রমেই জোরালো হয়। দেশের অন্তত চারটি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ে বৃৃহত্তর ময়মনসিংহে শিক্ষার্থী বেশি থাকায় বোর্ড স্থাপন যৌক্তিক বলে মনে করেন এই অঞ্চলের মানুষ। পরে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ময়মনসিংহে একটি নতুন শিক্ষাবোর্ড স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
ইতোমধ্যে প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।
এ লক্ষ্যে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইনের সভাপত্বিতে এক জরুরি সভা করা হয়। সভায় ময়মনসিংহে নতুন শিক্ষাবোর্ড করার যৌক্তিকতা তুলে ধরার পর প্রাথমিক যাচাই-বাচায়ের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিদ্যালয়) চৌধুরী মুফাত আহমেদকে আহ্বায়ক করে ৭ সদস্যের একটি কমিটি গঠিত হয়। এ কমিটিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব রুহি রহমান, ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের বিদ্যালয় শাখার পরিচালক এলিয়াস হোসেনসহ বিভাগীয় কমিশনার ও ময়মনসিংহের আঞ্চলিক কর্মকর্তাকে রাখা হয়েছে। সভা প্রসঙ্গে আন্তঃশিক্ষাবোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেন, ঢাকা বোর্ডের সীমানা অনেক বৃহত্তর হওয়ায় অনেককে দূর-দূরান্ত থেকে আসতে হচ্ছে। সংশ্লিষ্টদের সকল সুবিধা সহজভাবে দেয়া সম্ভব হয় না। বিভিন্ন সময় নানা ভোগান্তিতেও পড়তে হচ্ছে তাদের। তাই ময়মনসিংহে শিক্ষাবোর্ড হলে সে অঞ্চলের মানুষের ভোগান্তি কমে যাবে। সহজেই তারা বোর্ড সুবিধা পাবেন।
তিনি বলেন, মাঠ পর্যায়ে প্রাথমিক যাচাই-বাচাইয়ের জন্য কমিটি করা হয়েছে। আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। এ প্রতিবেদনের ভিত্তিতে উচ্চ পর্যায়ে যাচাই-বাছায়ের পর চূড়ান্ত করা হবে।

 

ময়মনসিংহ বিভাগ বাংলাদেশের অষ্টম প্রশাসনিক বিভাগ। জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ গঠিত। ১৮২৯ সালে ঢাকা বিভাগ প্রতিষ্ঠার সময় থেকে ২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চল ঢাকা বিভাগের অংশ ছিল। ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে ঢাকা বিভাগ ভেঙে নতুন ময়মনসিংহ বিভাগ গঠনের ঘোষণা দেন। শুরুতে ঢাকা বিভাগের উত্তর অংশ থেকে প্রতিবেশী ৮টি জেলা নিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও পরে ৬টি জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ গঠনের পরিকল্পনা করা হয়। এ সময় টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জবাসী, ময়মনসিংহ বিভাগের অন্তর্ভুক্ত হতে অনীহা ও বিরোধিতা করে এবং ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত থাকতেই ইচ্ছাপোষণ করে।

 

 

অবশেষে ২০১৫ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর ৪টি জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ গঠিত হয়। বিভাগের এর আয়তন ১০ হাজার ৪৮৫ বর্গকিলোমিটার ও জনসংখ্যা ১ কোটি ১৩ লাখ ৭০ হাজার জন।নবগঠিত ময়মনসিংহ বিভাগের চারটি জেলার মধ্যে রয়েছে মোট ২৪টি সংসদীয় আসন, উপজেলা ৩৫টি, থানা ৩৭টি, পৌরসভা ২৬টি, ইউনিয়ন ৩৫২টি, এবং গ্রাম ৭ হাজার ৩০টি। বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চল (ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, জামালপুর, শেরপুর, টাঙ্গাইল এবং কিশোরগঞ্জ) ১৭৮৭ সালের ১লা মে বৃটিশ-ভারত সরকারের আমলে ময়মনসিংহ জেলা হিসেবে গঠিত হয়। পরবর্তীতে ময়মনসিংহ জেলা মোট চারটি জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। ময়মনসিংহ বিভাগ হওয়ার আগ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে জেলা ছিল ১৭টি। নতুন বিভাগ হওয়ায় এখন ১৩ জেলা নিয়ে ঢাকা বিভাগ। ১৯৮৪ সালে সব মহকুমাকে জেলায় উন্নীত করার সরকারি সিদ্ধান্ত নেয়ার ফলে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা ও শেরপুর সব মহকুমাই জেলায় উন্নীত হয়।

 

 

১৮২৯ সালে ঢাকা বিভাগ প্রতিষ্ঠার সময় থেকে ২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চল ঢাকা বিভাগের অংশ ছিল। ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে ঢাকা বিভাগ ভেঙে নতুন ময়মনসিংহ বিভাগ গঠনের ঘোষণা দেন। দেশে বর্তমানে আটটি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডের পাশাপাশি একটি কারিগরি ও একটি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড রয়েছে। ময়মনসিংহ শিক্ষাবোর্ড স্থাপিত হলে এটি দেশের নবম সাধারণ শিক্ষাবোর্ড হবে। সবমিলিয়ে দেশে শিক্ষাবোর্ডর সংখ্যা হবে ১১টি।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৬