|

সর্বশেষ

নতুন সাজে তিস্তা আসছে ২ সেপ্টেম্বর

লোকলোকান্তর ডেস্কঃ  সোনার বাংলার মতো লাল-সবুজ কোচ পাচ্ছে ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ রুটের তিস্তা। ২ সেপ্টেম্বর থেকে পুরাতন কোনো কোচ থাকবে না তিস্তাতে। একই সঙ্গে ঢাকা-সিলেটের আন্তঃনগর ট্রেন পারাবত, ঢাকা-দিনাজপুর রুটের দ্রুতযান ও একতা এক্স‌প্রেসে পুরাতন কোচ খুলে নতুন কোচ সংযোজন করে করে দেওয়া হবে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, আগামী ২ সেপ্টেম্বর শুক্রবার এই চার ট্রেন রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে নতুন সাজে ‍যাত্রা শুরু করবে।

আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে ২০১৫ সালের পরপর দুটি বগি খুলে নেওয়া হয়। ঢাকা থেকে জামালপুর চলাচলকারী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই ট্রেন এমনিতেই যাত্রীবোঝাই থাকে। দেশের সবচেয়ে বেশি যাত্রী পরিবহনকারী ট্রেনও বলা হয় এটিকে। আর পুর‍াতন বগির কারণে যাত্রাপথে নানা ভোগান্তি পোহাতে হতো এ ট্রেনের যাত্রীদের।

এদিকে, এরই মধ্যে ঢাকা-খুলনা রুটের চিত্রা এক্সপ্রেস ভারত থেকে আনা নতুন কোচসহ চলাচল শুরু করেছে। আর ৮ সেপ্টেম্বর এ রুটের অপর ট্রেন সুন্দরবন এক্সপ্রেস পাবে নতুন কোচ দেওয়া হবে। ওইদিন ঢাকা মোহনগঞ্জ রুটে নতুন একটি ট্রেন পরিচালনা শুরু করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক জানান, এ বছর ভারত থেকে ১২০টি ব্রডগেজ কোচ এবং ইন্দোনেশিয়া থেকে ১০০টি মিটার গেজ ও ৫০টি ব্রড গেজ কোচ রেলের বহরে যোগ হবে। এখন পর্যন্ত ভারত থেকে ৬০টি কোচ ও ইন্দোনেশিয়া থেকে ৫৯টি কোচ এসেছে। বাকি কোচ পর্যায়ক্রমে আসবে।

রেলওয়ে সূত্র জানায়, বাংলাদেশের পতাকার সঙ্গে মিল রেখে স্টেইনলেস স্টিলের কোচগুলোর রঙ নির্ধারণ করা হয়েছে লাল-সবুজ। ভারত থেকে আনা ১২০টি কোচের মধ্যে রয়েছে ১৭টি প্রথম শ্রেণির শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত স্নিপার কোচ, ১৭টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চেয়ার কোচ, প্যান্ট্রি সংযুক্ত ৩৪টি সাধারণ চেয়ার কোচ, নামাজ পড়ার স্থানসহ ৩৩টি সাধারণ চেয়ার কোচ ও ১৯টি পাওয়ার কার কোচ রয়েছে।সুত্রঃ বাংলানিউজ

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:২৯ পূর্বাহ্ণ | আগস্ট ২৪, ২০১৬