|

ত্রিশালে বিয়ের দাবিতে ৬দিন যাবত প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান

asnki

ত্রিশাল প্রতিনিধিঃ   দীর্ঘ তিন বছর প্রেমের সম্পর্কের পর বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গত ছয় দিন ধরে অবস্থান করছেন প্রেমিকা খাদিজা বেগম। প্রেমিক মাহবুব উদাও। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার বইলর ইউনিয়নের সম্মূখ বইলর গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
বুধবার বিকেলে ঘটনাস্থলে গিয়ে খাদিজা বেগমের সাথে কথা বলে জানা যায়, সে একজন গার্মেন্টস কর্মী। ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার নন্দীবাড়ি তার গ্রামের বাড়ি। বাবার নাম আকবর আলী। তিন বছর আগে মোবাইল ফোনে মাববুবের সাথে তার পরিচয়। মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। মাঝেমধ্যে তারা দেখা সাক্ষাত ও ঘুরাফেরা করত।
গত বৃহস্পতিবার মাহবুব তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে আসে ত্রিশালে। আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে তিনদিন রাত্রি যাপনের পর তাকে তার বাড়িতে ফিরে যেতে বলে। মাহবুবের বাড়ি না চিনলেও ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে বইলর মোড়ের নাম বহুবার শুনেছিল সে। বইলর মোড়ে নেমে এক দোকানের সামনে দাড়িয়ে কান্নাকাটির এক পর্যায়ে এলাকার লোকজন মাহবুবের বাড়ি দেখিয়ে দিলে গত ছয় দিন যাবত ওই বাড়িতেই অবস্থান করছে সে।
এদিকে প্রেমিকা খাদিজা মাহবুবের বাড়িতে অবস্থানের পরপরই বাড়ি থেকে উদাও হয়ে যায় প্রেমিক মাহবুব। মেয়েটিকে টাকাপয়সা দিয়ে বিদায় করার জন্য স্থানীয় কিছু লোকজন উঠে পড়ে লেগেছে বলে জানা গেছে।
স্থানীয় আবু বকর সিদ্দিক জানান, ঘটনা সত্যি, আমার ছেলেকে নিয়ে মাহবুব কয়েকবার মুক্তাগাছায় দেখা করতে গিয়েছে। এলাকার কিছু খারাপ লোকের ইন্দনে ছেলেটি বাড়ি থেকে পালিয়েছে এবং মোটা অংকের টাকা দিয়ে সমাধানের চেষ্টা চলছে।
ত্রিশাল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, ওই বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। স্থানীয় নেতাকর্মী ও গন্যমান্যদের সাথে আমার কথা হয়েছে। মেয়েটি যেন তার অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:১৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৬