|

সর্বশেষ

শ্রীবরদীতে গৃহবধুকে নিয়ে চম্পট দিয়েছে এক লম্পট যুবক

শ্রীবরদী প্রতিনিধিঃ শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার সিংগাবরুনা ইউনিয়নের সীমান্ত জনপদের পাঁচমেঘাদল গ্রামের এক গৃহবধুকে নিয়ে গত সোমবার বিকেলে চম্পট দিয়েছে একই গ্রামের টিলাপাড়ার বাসিন্দা ২ সন্তানের জনক এক লম্পট যুবক। জানা যায়, পাঁচমেঘাদল গ্রামের দিন মজুর রফিক মিয়ার বিবাহিতা কন্যা রুপালি (১৮) কে গত সোমবার বিকেলে ফুসলিয়ে তার বাবার বাড়ি থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় একই এলাকার টিলাপাড়ার বাসিন্দা শাহজামালের ভ্যান চালক পুত্র ২ সন-ানের জনক আমিনুল মিয়া। এদিকে অপহরণের কয়েকদিন অতিবাহিত হলেও অপহৃতা গৃহবধু রুপালির কোনই সন্ধান পায়নি তার দরিদ্র পরিবার। স’ানীয় ইউপি সদস্য আবুল মেম্বার সহ কতিপয় সমাজপতিরা লম্পট আমিনুলকে বাঁচাতে অপহরণের ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করছে। রুপালির বাবা রফিক মিয়া জানায়- তার কন্যা রুপালি বেশ কিছুদিন পূর্বে বকশীগঞ্জ উপজেলার পলাশতলা গ্রামে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে লম্পট আমিনুল তাকে উক্তক্ত করে আসছিল। ঘটনার দিন সোমবার বিকেলে তার বাড়ির পাশের বাড়ি পলোয়ানের স্ত্রীর সহায়তায় আমিনুল তার মেয়েকে অপহরণ করে। গত কয়েকদিন যাবত রুপালিকে ফিরিয়ে দিবে বললেও তাকে দিচ্ছে না। এই বিষয়ে স’ানীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বারসহ গ্রাম্যমাতাব্বরদের জানানো হয়েছে। তারা আমাকে বিচার করে দিতে চেয়েছে। রুপালির ফুফু উমিলা জানায়- গত কয়েকদিন যাবত খোজাখুজি করে তার ভাতিজিকে না পাওয়ায় তারা আতঙ্কগ্রস’ হয়ে পড়েছে। সিংগাবরুনা ইউনিয়নের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুর রেজ্জাক মজনু বলেন- মেয়েটির বাবা আমাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। আমি বিষয়টি গ্রাম্য সালিশীর মাধ্যমে সমাধান করে দিব বলে তাদের বলেছি। শ্রীবরদী থানার ওসি এস আলম বলেন- এ বিষয়ে থানায় কেউ কোনো সংবাদ বা অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস’া নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৩, ২০১৬