|

সর্বশেষ

কলমাকান্দায় কাজ না করেই এডিবি’র ১৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি ঃ জেলার কলমাকান্দা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে এডিবি প্রকল্পের কাজ না করেই ১৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে। উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান স’ানীয় সংসদ সদস্য বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগে জানা গেছে, জেলার কলমাকান্দা উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ থেকে গত ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় উপজেলার আটটি ইউনিয়নে কোটি ২৬ লাখ ৬১ হাজার টাকার উন্নয়ন কাজের দরপত্র আহ্বান করা হয়। এর মধ্যে বড়খাপন ইউনিয়নের বড়বাড়ি জামে মসজিদ ঘাট ১লাখ ৫হাজার, নয়াপাড়া কমিউনিটি মেরামত ১লাখ, পুতিগাঁও আরশাদ মিয়ার বাড়ি হতে আবুল হাসেম চেয়ারম্যানের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণ, জয়নগর রাস্তায় হেকিম মেম্বারের বাড়ির সামনে ইউড্রেন নির্মাণ, নলচাপড়া রাস্তার কার্পেটিং এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আসবাবপত্র সরবরাহ না করেই প্রায় ১৪ লাখ টাকা সংশিৱষ্ট ঠিকাদারের যোগসাজসে আত্মাসাৎ করেন। ওই সমস্ত প্রকল্পে কাজ না করলেও ঠিকাদারকে বিল প্রদান করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান স’ানীয় এমপি বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন। এমপি ছবি বিশ্বাস প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস’া গ্রহনের জন্য বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করেন। জেলা প্রশাসক স’ানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালককে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস’া গ্রহনের জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।
কলমাকান্দা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি মেম্বার আবদুৃল হেকিম বলেন, দরপত্রে উলেৱখিত প্রকল্পের কাজ আমার ইউনিয়নে বাস্তবায়িত হয়নি। উপজেলার পোগলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্পাদক মোজাম্মেল হক বলেন, আমার ইউনিয়নেও এডিবির কাজে অনিয়ম হয়েছে। কাজ না করেই কাগজেপত্রে দেখানো হয়েছে। কাজ হয়েছে বলে। এতে করে সরকারী অর্থের অপচয় হয়েছে- কাজের কাজ কিছুই হয়নি।
কলমাকান্দা উপজেলা প্রকৌশলী হায়দার আলীর সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১২, ২০১৬