|

ময়মনসিংহে ২ নারী শিক্ষার্থীর যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের পরিচালকসহ চার শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা

photo-1470022032

 

স্টাফ রিপোর্টার | ১ আগস্ট ২০১৬, সোমবার
ময়মনসিংহে তালেব আলী ম্যাটস নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দুই নারী শিক্ষার্থীর শ্লীলতাহানি ও যৌন হয়রানির সঙ্গে জড়িত অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ফজলুল হক ও চার শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে  রোরবার মামলা করা হয়েছে। মামলাটি করেছেন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন দাবি করা একজন শিক্ষার্থী।
নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি করা হয়েছে বলে জানান, সেকেন্ড অফিসার উপপরিদর্শক (এসআই) মুশফিকুর রহমান ।
মামলার অন্য আসামিরা হলেন, ত্রিশালের পার্থ মহাপাত্র, শেরপুরের শাহাদৎ ও সজীব ও কিশোরগঞ্জের দ্বীন মোহাম্মদ।
যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন এমন খবর পেয়ে অভিযোগকারী শিক্ষার্থীর সহপাঠীরা গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রতিষ্ঠানটিতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও বিক্ষোভ করেন।
অভিযুক্ত ফজলুল হক বলেন, অভিযোগকৃত ঘটনাটির সময় তিনি ঘটনাস’লেই ছিলেন না, সবই ষড়যন্ত্র।
বাদী তাঁর এজাহারে লিখেছেন, ভর্তির সময় প্রতিষ্ঠানটি যে ধরনের সুবিধা দেওয়ার কথা বলেছিল, তা না দেওয়ায় তিনিসহ সাত নারী শিক্ষার্থী গত ২৮ জুলাই প্রতিষ্ঠান থেকে বাইরের মেসে চলে যান। এ ক্ষোভেই প্রতিশোধ ও শায়েস-া করতে পরিচালকের নির্দেশে শনিবার দুই নারী শিক্ষার্থীকে কৌশলে অধ্যক্ষের কক্ষে ঢুকিয়ে অভিযুক্ত চার শিক্ষার্থী তাঁদের নির্যাতন করে।
এজাহারে আরো বলা হয়, ওই চার শিক্ষার্থী তাঁদের (নারী শিক্ষার্থীদ্বয়ের) মুখ চেপে ধরে কিল-ঘুষিসহ মারধর করে আপত্তিকর প্রস-াব দেয়। শিক্ষার্থীদ্বয় এতে সাড়া না দেওয়ায় তাঁদের চুল ধরে মাটিতে ফেলে দেয় অভিযুক্তরা। এ সময় অভিযোগকারীদের চিৎকারে প্রতিষ্ঠানের বাবুর্চি এগিয়ে এলে ভয়ভীতি দেখানো হয় এবং পরিচালক সম্পর্কে ভালো কথা না বললে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।
অভিযোগকারী একজন জানান, মানসিক নির্যাতন, গাদাগাদি করে বসবাস ও খাওয়ার সমস্যা থাকায় তাঁরা প্রতিষ্ঠান থেকে নির্ধারিত আবাসস’ল ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ায় তাঁদের ওপর নেমে এসেছে নির্যাতনের খড়গ। অভিযোগকারীর বাবা এ ঘটনার দৃষ্টান-মূলক বিচার দাবি করেন।###

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৪৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০১, ২০১৬