|

গৌরীপুর ও পূর্বধলায় ২৪ ঘন্টায় মহিলাসহ ২ জন খুন

 ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি| ৩০ জুলাই ২০১৬, শনিবার
ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর ও নেত্রক্‌েনার পূর্বধলা উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় মহিলাসহ ২জন খুন হয়েছে।
জানা যায়, আজ শনিবার সকালে গৌরীপুর উপজেলার শ্যামগঞ্জ মইলাকান্দা ইউনিয়নের মইলাকান্দা মাইজপাড়া গ্রামের কালাশাহ ফকির (৬৫) নামে এক ব্যাক্তিকে প্রকাশ্য দিবালোকে দুস্কৃতিকারীরা পেটে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে। খুনীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতা আজিম উদ্দিন (২৪) ও মাসুদ মিয়া (৩০) নামে দুই ব্যাক্তিকে আটক করে গৌরীপুর থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। স’ানীয় জানায় কালাশাহ ফকিরকে মুমুর্ষ অবস’ায় চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস’ায় সে মারা যায়। mader pt
কালাশাহ ফকিরের ছেলে ইমন শাহ ফকির জানান, সকাল ১০টার দিকে ৫ যুবক কালা শাহ ফকিরের মইলাকান্দা নিজ বাসায় আসে এবং হুজুরের সাথে কথা আছে বলে ঘরে প্রবেশ করে কিছু বুঝে উঠার আগেই চেয়ারে বসে থাকা কালা শাহ ফকিরের পেটে ছুরিকাঘাত করে এ সময় তার ছেলে ইমন শাহ ফকির চিৎকার করলে দুস্কৃতিকারীরা পালিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ষ্টেশন এলাকায় জনতার হাতে দুইজন গ্রেফতার হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো গৌরীপুর উপজেলার খলদবাড়ী গ্রামের হারেছ উদ্দিনের পুত্র আজিম উদ্দিন(২৫) ও একই গ্রামের হাসেম মুন্সির ছেলে মাসুদ মিয়া (৩০)্‌। মাসুদ মিয়া জানান এ সময় তাদের সঙ্গী একই গ্রামের পারভেজ, শামীম ও মাহাবুব পালিয়ে যায়।
গৌরীপুর থানার ওসি ফুজলুল করিম জানান নিহত কালা শাহ ফকির কবিরাজী করতেন এক বছর আগে গৌরীপুর খলদবারী এলাকার মাহাবুর নামে এক ব্যাক্তি তার পছন্দের এক মেয়ে কে বসে এনে দেওয়ার জন্য কালা শাহ ফকিরকে কিছু টাকা দেয় কিন’ এক বছরের মধ্যে কাজ না হওয়ায় কারনে এ বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তিনি জানান।
অপরদিকে গত শুক্রবার জমির সীমানাকে কেন্দ্র করে আলীপুর গ্রামে আপন চাচা শ্বশুরের লাঠির আঘাতে ভাতিজা বৌ নিহত হয়েছে। পুলিশ সুত্রে জানা য়ায় পূর্বধলা উপজেলার আলীপুর গ্রামের মোতালিব মিয়ার সাথে আপন ভাতিজা আজিজুলের জমির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। ঘটনার দিন শুক্রবার চাচা আঃ মোতালিব সেখানে গাছের চারা লাগাতে গেলে ভাতিজা বৌ আবিদা সুলতানা (৩০)বাধা দিলে এ নিয়ে উভয়ের মাঝে কথাকাটাকাটি এবং পযর্ায়ে উভয় পৰের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে য়ায়। এ সময় চাচা মোতালিবসহ বাড়ীর অন্যান্য লোকজন প্রতিপৰ আবিদা সুলতানাকে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। আশংকাজনক অবস’ায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনার পর পর পুলিশ চাচা মোতালিব মিয় (৬৫) ও শিউলি (২৮) কে গ্রেফতার করে এ ব্যাপারে পূর্বধলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। ###

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:২৬ অপরাহ্ণ | জুলাই ৩০, ২০১৬