|

সর্বশেষ

উপকার করতে শুধু ইচ্ছার প্রয়োজন

এম খলিলুর রহমান, ঝিনাইগাতী সংবাদদাতা:  শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার ডেফলাই গ্রামের মোঃ মোস্তফা নামের এক যুবকের ব্যক্তিগত উদ্দ্যেগে ও অর্থায়নে নলকুড়া ইউনিয়নে জনগণের দুর্ভোগ লাগবের জন্য ৫টি কাঠের ব্রিজ নির্মাণ করে দিয়েছেন। তাছাড়া ১হাজার ৫শতজন ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ১দিস্তা খাতা ও ১টি করে কলম বিতরণ করেছেন। শুধু তাই নয় গত শীত মৌসুমে হত-দরিদ্র শীতার্থদের মাঝে ৫০টি কম্বল ও  বিতরণ করেন তিনি।

সমাজ সেবক এই যুবক ডেফলাই গ্রামের শরাফত আলীর ছেলে। নির্মিত ব্রিজ ৫টি হচ্ছে, ডেফলাই আব্দুল কাদিরের বাড়ীর পাশে ১১ফুট ব্রিজ, একই গ্রামে নুর রহমানের বাড়ীর সামনে ৮ফুট ব্র্রিজ, নবী ডাক্তারের বাড়ীর নিকট ঝুড়ার উপর ২০ফুট ব্রিজ, শালচুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে সিদ্দিকের বাড়ীর পাশে ঝুড়ার উপর ২১ফুট ব্রিজ ও নুনখোলা-ডেফলাই গ্রামের তোফাজ্জলের বাড়ীর নিকট ঝুড়ার উপর ৩০ফুট ব্রিজ।

এছাড়াও এই যুবক উপজেলার নলকুড়া, কাংশা ও হাতীবান্ধা ইউনিয়নের ৩০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অসহায় ও দরিদ্র ১হাজার ৫শতজন ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ১দিস্তা খাতা ও ১টি করে কলম বিতরণ করেছেন। এছাড়াও গত শীত মৌসুমে হত-দরিদ্র শীতার্থদের মাঝে ৫০টি কম্বল বিতরণ করেন। এলাকাবাসী যুবক মোস্তফার এই উদ্দ্যেগকে স্বাগত জানান।সমাজ সেবক এই যুবকের প্রতাশা, যতদিন তিনি এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকবেন, ততদিন যেন সে মানুষের সেবা করে বাঁচতে পারেন।

যুবক মোস্তফা’র এই সমাজ সেবার মাধ্যমে অন্য কোন চাওয়া নেই বলে এই প্রতিনিধিকে  জানান। মোস্তফা বলেন, আমাদের যার যতটুকু আছে তা দিয়েই সমাজের উপকার করা সম্ভব, উপকার করতে শুধু প্রয়োজন ইচ্ছার।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম বাদশা যুবক মোস্তফার সামাজিক উন্নয়ন মূলক কাজগুলোর স্বীকৃতি স্বরুপ একটি প্রত্যায়ন পত্র দিয়েছেন বলে জানা যায়।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৩৬ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৬, ২০১৬