|

ঐক্যবদ্ধ হয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তা করলেই জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করা সম্ভব–ভিসি মোহীত উল আলম

এইচ.এম জোবায়ের হোসাইন, ত্রিশাল, ২৬ জুলাই ২০১৬, মঙ্গলবার,
জাতীয় কবি কাজী নজরল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহীত আলম বলেছেন, ‘পরিবারের গন্ডি পেরিয়ে যখন একজন ছেলে বা মেয়ে বাইরে বের হয় তখন তার অভিভাবক তার বিবেক। সিসিটিভির মাধ্যমে সবকিছু মনিটরিং করা সম্ভব নয়। তাই মানুষের বিবেকের সিসিটিভিকে জাগ্রত করতে হবে। মানুষকে মানুষ হিসেবে দেখতে হবে, ধর্ম দিয়ে নয়। তাহলেই সংঘাত কমে যাবে। আর শিৰার্থীদের জন্য প্রত্যেক শিক্ষকই আসলে একেকজন মনোবিজ্ঞানী এবং অভিভাবক।’ গুলশান ও শোলাকিয়ায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বিশেষ করে পুলিশ ও র‌্যাবের সাহসি ভূমিকা এবং জঙ্গিবাদ দমনে আত্মত্যাগের উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে আমাদের সকলকেই সহায়তা করতে হবে। সবাই একসাথে ঐক্যবদ্ধ হলেই জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করা সম্ভব। আসলে জঙ্গিবাদ বিচ্ছিন্ন কোন ঘটনা নয়। এর সাথে সাম্প্রদায়িকতা, স্বাধীনতা বিরোধী এবং সরকার বিরোধী শক্তির যোগসূত্র আছে।’
তিনি আজ মঙ্গলবার ‘মানবিক মূল্যবোধ অটুট থাক, জঙ্গিবাদ নিপাত যাক’ শ্লোগানকে সামনে রেখে দেশে বিদ্যমান বিভিন্ন জঙ্গি হামলা প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লৰ্যে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে জঙ্গিবাদ বিরোধী র‌্যালি এবং গাহি সাম্যের গান মঞ্চে সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। সমাবেশ পূবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মোহীত উল আলমের নেতৃত্বে এক র‌্যালি প্রশাসনিক ভবন থেকে শুর্ব হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদৰিণ করে।
সমাবেশে ময়মনসিংহ রেঞ্জের এডিশনাল ডি.আই.জি ড. মো: আক্কাছ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ‘শান্তিকামী মানুষের দেশ বাংলাদেশ। এদেশে জঙ্গিবাদের স্থান হতে পারে না। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী আজ জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন। জঙ্গিবাদ দমনে সকলের মধ্যে সহযোগিতার মনোভাব বৃদ্ধি করতে হবে।’ কবি নজর্বল বিশ্ববিদ্যালয়ে সকলের মাঝে সহযোগিতার মনোভাব থাকায় উপাচার্যসহ সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে তিনি বলেন, ‘এজন্যই এখানে এখন পর্যন্ত কোন প্রকার অঘটন ঘটেনি।’
সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ট্রেজারার ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশ আয়োজন কমিটির সভাপতি প্রফেসর এ এম এম শামসুর রহমান, পরিচালক (ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা) প্রফেসর ড. মো: নজরুল ইসলাম, প্রক্টর প্রফেসর ড. মো: মাহবুব হোসেন, ত্রিশাল পৌর মেয়র এ.বি.এম আনিছুজ্জামান, র‌্যাবের হেড কোম্পানী কমান্ডার জমিস উদ্দিন, ময়মনসিংহের এডিশনাল এস.পি এস. এ. নেওয়াজী, ত্রিশাল উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আবু জাফর রিপন, ছাত্র প্রতিনিধি সাব্বির আহমেদ ও আপেল মাহমুদ। সমাবেশটির সঞ্চালনায় ছিলেন থিয়েটার এন্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগের বিভাগয় প্রধান সৈয়দ মামুন রেজা।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:২৪ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৬, ২০১৬