|

নেত্রকোনায় ধর্ষণের দায়ে একজনের যাবজ্জীবন

index

নেত্রকোনা প্রতিনিধি ঃ জুলাই ২০১৬, মঙ্গলবার

জেলার কলমাকান্দা উপজেলার ঘোড়াগাও গ্রামের মরম আলীর ছেলে মাসুদ রানাকে (৩২) সদর উপজেলার কে. গাতী ইউনিয়নের গলুহা গ্রামের এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদ- দেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে নেত্রকোনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ড. এ কে এম আবুল কাশেম এই রায় দেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৫ সালের ২৮ ফেব্র্বয়ারী সদর উপজেলার গলুহা গ্রামের দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক কলেজ ছাত্রীকে(১৮) পুলিশের চাকুরি দেওয়ার কথা বলে মাসুদ রানা ওই ছাত্রীর পরিবারের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নেন। এরপর ৪ মার্চ ওই ছাত্রীকে পুলিশ লাইনসে নিয়ে দাড় করানোর কথা বলে মাসুদ রানা ছাত্রীর বাড়ি থেকে তাকে মোটরসাইকেলে করে কলমাকান্দা উপজেলার চেমটি এলাকায় একটি পাহাড়ের কাছে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ঘটনার পর দিন ছাত্রী নিজে বাদী হয়ে মাসুদ রানার বির্বদ্ধে কলমাকান্দা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশ একই বছরের ২২ মে আসামীর বির্বদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। বিজ্ঞ বিচারক ড. মো. আবুল কাশেম সাতজন সাৰীর সাৰ্য শেষে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আসামীর অনুপসি’তিতে এই রায় প্রদান করেন। মাসুদ রানা উচ্চ আদালত থেকে জামিনে বের হয়ে পলাতক রয়েছেন।
এ দিকে একই আদালত স্ত্রীর কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক নেওয়ার অভিযোগে জেলার পূর্বধলা উপজেলার ধারাযাওয়ালি গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কুদ্দুসকে (৩৪) দুই বছরের সশ্রম করাদ- দেন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৫২ অপরাহ্ণ | জুলাই ১২, ২০১৬