|

জামালপুরে রেলওয়ে পুলিশের পিটুনিতে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, ২ পুলিশ বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টারঃ  আজ সোমবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যায় জামালপুরে রেলওয়ে (জিআরপি) পুলিশের মারধরে আহত সাবেক সেনাসদস্য মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারীর (৬০) মৃত্যুর ঘটনায় রেলওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও এক কনস্টেবলকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ও ঘটনাটি তদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ রেলওয়ে তে কর্মরত এক পুলিশ সদস্য সালাম জানান, ঘটনাটি আমি লোক মুখে শুনেছি। যদি অভিযোগটি সত্য প্রমাণিত হয় তাহলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া উচিত।
এর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় ট্রেনের টিকিট কাটা নিয়ে স্টেশন মাস্টারের সঙ্গে কথা-কাটাকাটির হয় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারীর। এ সময় জামালপুর জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌর চন্দ্র মজুমদার ও কয়েক কনস্টেবল তাকে আটক করে থানায় নিয়ে বেদম মারধর করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। খবর পেয়ে তার জামাতা আলমগীর হোসেন এসে তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ সিএমএইচে নিয়ে যান। সেখানে বিকেল সাড়ে ৩টায় তার মৃত্যু হয়। এদিকে, বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে স্টেশনে অবস্থান নিয়ে জিআরপি থানা ঘেরাও করে আছেন মুক্তিযোদ্ধারা।
মারধরের কথা অস্বীকার করে বরখাস্তকৃত ওসি গৌর চন্দ্র মজুমদার বলেন, টিসি অফিসের সামনে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারী আমার ওপর চড়াও হন। তিনি এক  কনস্টেবলকে ধাক্কা দিলে সেও তাকে পাল্টা ধাক্কা দেয়। এতে প্ল্যাটফর্মে পড়ে আব্দুল বারী মাথার পেছনে আঘাত পান।
এ ব্যাপারে রেলওয়ে পুলিশ সুপার (চট্টগ্রাম) নজরুল ইসলাম জানান, অভিযুক্ত দুইজনকে সাময়িক বরখাস্ত করে বিভাগীয় তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এছাড়া জামালপুর জেলা প্রশাসক ও রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জামালপুরের জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম খোকা বলেন, অবিলম্বে তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা না করলে আরও বড় আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবেন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ১১:২৩ অপরাহ্ণ | জুলাই ১১, ২০১৬