|

ফলোআপ ঈশ্বরগঞ্জে লম্পটের হাতে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ ফাতেমার মৃত্যু

index

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি-১১ জুলাই ২০১৬, সোমবার
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের অগ্নিদগ্ধ সেই গৃহবধূ ফাতেমা আক্তার (২৫) ঢাকা মেডিকেলের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সন্ধ্যায় মারা গেছেন।
স্থানীয় লোকজন ও গৃহবধূর পরিবার সূত্রে জানা যায়, অনৈতিক প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়া ও এ ঘটনার বিচার চাইলে ফাতেমার প্রতি ৰুদ্ধ হন প্রতিবেশী দুদু মিয়ার ছেলে সোহরাব মিয়া। ফাতেমার স্বামী বাড়ি এসে স্ত্রী মুখে এ কথা শুনে তিনি সোহরাবকে গালিগালাজ করেন। এতে ৰুদ্ধ হন সোহারাব মিয়া।
গত ৩০ জুন সাহরির পর ফাতেমা প্রাকৃতিক কাজ সারতে বাইরে গেলে আগে থেকে ওঁত পেতে থাকা সোহরাব তাঁর (ফাতেমার) শরীরে দাহ্য তরল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। অগ্নিদগ্ধ ফাতেমার চিৎকারে স্বামী বাচ্চু মিয়া ছুটে গিয়ে আগুন নেভাতে গিয়ে তিনিও দগ্ধ হন। পরে এলাকাবাসী ছুঁটে এসে উভয়ের শরীরের আগুন নেভাতে সৰম হন। পরে খবর পেয়ে ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের লোকজন স্বামী-স্ত্রী দুজনকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস’া সংকটাপন্ন হওয়ায় ফাতেমাকে সেদিনই ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। সেখানে ১১দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর ফাতেমা মারা যান। ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফাতেমার মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করেছেন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৪১ অপরাহ্ণ | জুলাই ১১, ২০১৬