|

দুর্গাপুরে হামলা, কলেজছাত্রকে হত্যার হুমকি, আহত ৫

index

নেত্রকোনা প্রতিনিধি ঃ জেলার দুর্গাপুরের আটলা গ্রামে পূর্ব শত্র্বতার জের ধরে কয়েক যুবক আবদুল করিমের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে। এ সময় নারীসহ কমপক্ষে ৫জন আহত হয়। গুর্বতর আহত নাজমা খাতুন, নাছিমা খাতুন, আল-আমিনকে দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সের ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আবদুল করিমের ছেলে ফার্বক হাসান বাদী হয়ে একই গ্রামের আবদুল মোতালিবসহ ১৮জনের বির্বদ্ধে দুর্গাপুর থানায় রোববার মামলা দায়ের করেন। আসামীরা ফর্বককে কাফনের কাপড় কিনে রাখতে মোবাইলে হুমকি দেয়।
জানা গেছে, জেলার দুর্গাপুর উপজেলার গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নের আটলা গ্রামে আবদুল করিমের ছেলে সুসং ডিগ্রী কলেজে বিএ’র ছাত্র ফার্বক হাসানের সাথে কিছুদিন ধরে একই গ্রামের আবুল মোতালিবের বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে গত শনিবার আবদুল মোতালিবের নেতৃত্বে ১৭-১৮জন যুবক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ফর্বকদের বাড়িতে হামলা চালায়। দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ফার্বককে খোঁজতে থাকে এবং রামদা দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়ে ঘরের বেড়া ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে। হামলাকারীরা ফর্বককে হত্যার হুমকি দেয়। এ সময় হামলাকারীদের অস্ত্রের আঘাতে ওই বাড়িতে বেড়াতে আসা ফারুকের বোন নাজমা খাতুন, নাছিমা খাতুন, ভাগ্নে আল-আমিনসহ অন্তত ৫জন আহত হয়। হামলাকারীরা ঘরে ঢুকে আলমারীর ড্রয়ারে রাখা নগদ ১লক্ষ ৫ হাজার টাকাসহ প্রায় ৫০ হাজার টাকার স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় এবং প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করে। পুলিশ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছে।
দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান মো. হুমায়ুন কবীর জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। কয়েকজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। পুলিশ ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:১৫ অপরাহ্ণ | জুলাই ১১, ২০১৬