|

বিশ্ব মিডিয়ায় বাংলাদেশের প্রথম সমকামী ম্যাগাজিনের সম্পাদক জুলহাজ হত্যাকাণ্ড

লোকলোকান্তর ডেস্কঃ  সমকামী ও হিজড়াদের অধিকার প্রতিষ্ঠার সাময়িকী ‘রূপবান’র সম্পাদক জুলহাজ মান্নানের হত্যাকাণ্ডের খবর গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো। বিশ্বের পূর্ব থেকে পশ্চিমে, উত্তর থেকে দক্ষিণে তোলপাড় হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের বুস্টনগ্লোব, ফরেন পলিসি, স্লেট, সিএনএন, নিউইয়র্ক টাইমস, এনবিসি নিউজ, গ্লোবাল ভয়েস, গে ডটকমে জুলহাসের হত্যার সংবাদটি গুরুত্বসহকারে প্রকাশ করেছে। এসব মিডিয়া জুলহাসকে রূপবান পত্রিকার সম্পাদকের চেয়ে সমকামী কর্মী হিসেবে বেশি প্রাধান্য দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, সোমবার বিকালে রাজধানীর কলাবাগানের লেক সার্কাস রোডের বাড়িতে ঢুকে জুলহাজ মান্নান ও তার এক বন্ধু নাট্যকর্মী তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

বিবিসি, গার্ডিয়ান, ইন্ডিপেন্ডেন্ট, টেলিগ্রাফ, রয়টার্স, ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি, ফ্রান্স টুয়েন্টিফোর, মার্কিন বার্তা সংস্থা এপি, ওয়াশিংটন পোস্ট, নিউইয়র্ক টাইমস, নিউইয়র্ক পোস্ট, ভারতের দ্য হিন্দু, হিন্দুস্তান টাইমস, আইরিশ এক্সামিনার, অষ্ট্রেলিয়ার স্টার অবজারভার, এবিসি নিউজ, বিএনডিটি, এসবিএস, ৯ নিউজ।  সিঙ্গাপুরের ইজেআইএন ইনসাইট। পাকিস্তানের পাকিস্তান টুডে। হংকংয়ের হংকং স্ট্যান্ডার্ড। ইসরায়েলের হারেৎজ, আমিরাতের গালফ টুডে, দ্য ন্যাশনাল।  নিউজিল্যান্ডের রেডিও নিউজিল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড এ খবরকে ফলাও করে প্রকাশ করে।

অধিকাংশ পত্রিকারই শিরোনাম ছিল- ‘বাংলাদেশে সমকামী পত্রিকার সম্পাদক খুন।’ ‘বাংলাদেশ এলজিবিটি এডিটর হ্যাকড টু ডেথ’ (বাংলাদেশে সমকামী সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা) শিরোনামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, জুলহাজ মার্কিন দূতাবাসের সাবেক কর্মকর্তা ও সমকামীদের ম্যাগাজিন রূপবানের সম্পাদনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির হেডলাইনে ছিল ‘বাংলাদেশের সমকামী সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা’।

কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা তাদের হেডলাইনে শুধু বলেছে, ‘বাংলাদেশে দুইজনকে কুপিয়ে হত্যা’।

ভারতের টাইমস অব ইন্ডিয়া বলেছে, ‘বাংলাদেশে সমকামী কর্মীসহ দুইজনকে কুপিয়ে হত্যা’।

ইন্ডিপেনডেন্ট দিয়েছে, ‘বাংলাদেশের প্রথম সমকামী ম্যাগাজিনের সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা’।

দ্যা গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ‘বাংলাদেশের প্রথম সমকামী ম্যাগাজিনের সম্পাদক খুন’।

নিউইয়র্ক পোস্ট জানিয়েছে, ‘বাংলাদেশি সমকামী ম্যাগাজিনের সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা।’

ব্রিটিশ গণমাধ্যম মিরর দিয়েছে, ‘বাংলাদেশের সর্বপ্রথম সমকামী পত্রিকার সম্পাদককে কুপিয়ে হত্যা’

তবে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে জুলহাজকে যুক্তরাষ্ট্রের বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মী বলা হয়েছে। জুলহাজ হত্যার পর মার্কিন দূতাবাসের ফেসবুক বিবৃতিতে তাকে দূতাবাস কর্মী উল্লেখ করা হয়। বিবৃতিতে তাকে ‘ডিয়ার ফ্রেন্ড’ বলে সম্বোধন করা হয় বলে জানিয়েছে সিএনএন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:৪৮ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৬, ২০১৬