|

‘যে কোন অশুভ শক্তিকে প্রতিহত করতে সেনাবাহিনী প্রস্তুত’

অনলাইন ডেস্ক | ১৪ জানুয়ারি ২০১৬, বৃহস্পতিবার,

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের শক্তি জনগণ, আর সেনাবাহিনী জনগণের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাই সেনাবাহিনীকে সাধারণ মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করতে হবে। দেশের বিরুদ্ধে যে কোন অশুভ শক্তিকে প্রতিহত করতে সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রংপুরের পাগলাপীর খলেয়াগঞ্জিপুর এলাকায় সেনাবাহিনীর ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের শীতকালীন মহড়ার সমাপনি অনুষ্ঠান পরিদর্শন শেষে সেনাবাহিনীর দরবার অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের সেনাবাহিনী সত্যিকার অর্থেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে উঠা বাহিনী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহবানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে দুর্বার প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। তারই সাক্ষ্য বহন করছে রংপুর সেনানিবাসের রক্ত গৌরব স্মৃতিসৌধটি। দেশমাতৃকার জন্য আত্মত্যাগের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হিসেবে আজো অম্লান। সকল শহিদদের আত্মত্যাগ সেনাবাহিনীকে দেশ রক্ষার দায়িত্ব পালনে আরও উজ্জিবিত করবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেন, সামরিক শক্তি ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে আধুনিক সরঞ্জামাদি ও উন্নত প্রশিক্ষণ যেমন অপরিহার্য, তেমনি সেনা সদস্যদের মনোবল বৃদ্ধিতে অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করাও অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।
এর আগে খলেয়া হেলিপ্যাডে পৌঁছালে তিন বাহিনী প্রধান তাকে স্বাগত জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রী ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত- ‘ব্রিগেড গ্রুপ আক্রমণ’ মহড়া দেখেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মো. মাসুদ রাজ্জাক। প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজ্জাম্মেল হক, সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব) তারেক আহমেদ সিদ্দিক, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:২৪ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৪, ২০১৬