|

ছাত্রলীগের সংঘর্ষ: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থগিতকে কেন্দ্র করে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে আবারও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধসহ ৭জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের জেরে আগামী ৬ই জানুয়ারি পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে কতৃপক্ষ।
পুলিশ ও প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড গঠন নিয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার  ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১জন গুলিবিদ্ধসহ ৮ জন আহত হয়। আজ শনিবার সকাল থেকেই ছাত্রলীগের দু’গ্রুপ ক্যাম্পাসে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারে অবস্থান নেয়। বেলা পৌনে ১টার দিকে উভয় গ্রুপ মিছিল শুরু করলে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় দু’গ্রপের মধ্যে কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে বশির (২২) নামে এক ছাত্রলীগ নেতা গুলিবিদ্ধসহ ৭ জন নেতা-কর্মী আহত হয়।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৪৫ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৯, ২০১৫