|

ত্রিশালে ঝুকিপূর্ণ ভবনে শিক্ষার্থীদের পাঠদান, জরুরী সংস্কার প্রয়োজন

 

এইচ.এম জোবায়ের হোসাইন, ত্রিশাল ব্যুরো ১৭ এপ্রিল, রোববার,
ময়মনসিংহের ত্রিশালের সদর ইউনিয়নের বাগান আজিজিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদের প্লাাষ্টারগুলো ভেঙ্গে পড়ছে। আর এই ভবনেই দেওয়া হচ্ছে শিক্ষাার্থীদের পাঠদান। সংস্কার তরা বা এর কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় আতংকিত শিক্ষার্থীরা।

খোজ নিয়ে জানাযায়, ত্রিশাল উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাগান গ্রামে ১৯৭৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় বাগান আজিজিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি। প্রতিষ্ঠা কালীন সময়ে বিদ্যালয়টি বেসরকারী থাকলেও সম্প্রতি জাতীয় করণের আওতায় আনা হয়। বাগান ক্লাষ্টারের আওতায় এ বিদ্যালয়ে ১ম শ্রেণী থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যনত্ম শিক্ষার্থীও সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৩ শত। পর্যাপ্ত পরিমান ক্লাশ রম্নম না থাকায় শিক্ষার্র্থীদের পাঠদানে প্রতিনিয়তই হিমশিম খেতে হচ্ছে শিক্ষকদের। বিদ্যালয়ের ৩ রম্নম বিশিষ্ট দুটি ভবনে ৬টি শ্রেণী কক্ষ থাকলেও শিক্ষক মিলনায়তন ও গোদাম ঘরের পরে অবশিষ্ট ৪টি কক্ষে প্রায় সাড়ে তিনশত শিক্ষার্থী পাঠদান নিচ্ছেন। বিদ্যালয়টিতে দুইটি ভবন রয়েছে, যার মধ্যে ১৯৯৪-৯৫ অর্থ বছরে পিডি-২ থেকে দুই রম্নম বিশিষ্ট ১টি ভবন রয়েছে। বর্তমানে উক্ত ভবনটিও একেবারে ঝরাঝির্ণ অবস্থায় রয়েছে। উক্ত ভবনটির ছাদের পস্নাষ্টার নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতেই শ্রেণী কক্ষে পানি ঝড়তে থাকে। ফলে এক দিকে যেমন পাঠদানের কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে অন্যদিকে যে কোন সময় এ ভবনটিতে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। পস্নাস্টারগুলো আকস্মিক ভাবেই ভেঙ্গে পড়ছে। ভয়ে শিশুরা ক্লাশও নিয়মিত করছে না। গত কয়েক দিনে ভূমিকম্পের সময় ভবন ধসে পড়ার আশংকায় শিক্ষার্থীরা ঐ ভবনে কোন ক্লাশ করেনি।

বাগান আজিজিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদের আকন্দ জানান, একটি দ্বি-তলা ভবন নির্মাণ ও পস্নাষ্টার ভেঙ্গে যাওয়া শ্রেণী কক্ষ সংস্কারের জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসরা বরাবর আবেদন করা হয়েছে। এখন পর্যনত্ম কোন সাড়া পাওয়া যায়নি। অন্যান্য বিদ্যালয় সংস্কার করা হলেও এ বিদ্যালয়টি অধ্যাবদি সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:৪২ অপরাহ্ণ | মে ১৭, ২০১৫