|

লিবিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক,১৭ মে ২০১৫, রবিবার:

লিবিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটির সরকার। লিবিয়া থেকে অবৈধ পথে বাংলাদেশিদের ইউরোপে পাড়ি জমানোর চেষ্টার অভিযোগ তুলে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।
আফ্রিকার উত্তরাঞ্চলের ভূমধ্যসাগর তীরবর্তী দেশটির সরকারের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রোববার (১৭ মে) এ খবর জানিয়েছে।
স্বৈরশাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতনের পর ব্যাপক সহিংসতায় রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনা ভেঙে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানবপাচারকারীদের অভয়ারণ্যও হয়ে উঠেছে লিবিয়া। দেশটির উপকূল ঘেঁষেই সাধারণত ইতালি, গ্রিস, ফ্রান্সসহ ইউরোপের দেশগুলোতে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করে অবৈধ অভিবাসীরা।
তেল-গ্যাস-খনিজ সমৃদ্ধ দেশটির বিশ্ব সম্প্রদায় স্বীকৃতি সরকারের মুখপাত্র হাতেম উরাইবি বলেন, বাংলাদেশি শ্রমিকদের লিবিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তারা এখানকার কারখানাগুলোতে কাজ করতে এলেও পরে অবৈধ পথে ইউরোপে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করে।
এ নিষেধাজ্ঞা অবৈধ অভিবাসনের বিরুদ্ধে সরকারের প্রচেষ্টারই অংশ বলে জ‍ানান হাতেম উরাইবি।
পূর্বাঞ্চলভিত্তিক এ সরকারের নিষেধাজ্ঞা পূর্বাঞ্চলেরই স্থল সীমান্ত, নদী, সমুদ্র ও বিমানবন্দরে বলবৎ থাকবে। এর বেশি বিস্তারিত জানাননি সরকারের এ মুখপাত্র।
অবশ্য, রাজধানী ত্রিপোলিসহ বেশ কিছু অঞ্চল বিভিন্ন মিলিশিয়া বাহিনীর হাতে দখল হয়ে থাকায় সেখানে সরকারের এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকরের ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করা হচ্ছে। তাছাড়া, বিশ্ব সম্প্রদায় স্বীকৃত এ সরকারের পশ্চিমাঞ্চলে কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই, অথচ ওই অঞ্চলের উপকূল থেকেই ইউরোপ অভিমুখে অভিবাসীদের ছেড়ে দেয় মানবপাচারকারীরা।
গত ১৯ এপ্রিল রাতে লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে পেলাগি দ্বীপপুঞ্জের লাম্পেদুসা থেকে প্রায় একশ’ ৯৩ কিলোমিটার দক্ষিণে লিবিয়ার জলসীমায় নয়শ’ যাত্রী নিয়ে একটি নৌযান ডুবে যায়। স্মরণকালের মর্মান্তিক ওই  দুর্ঘটনায় ভূমধ্যসাগরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।
এরই প্রেক্ষিতে সাগরে প্রাণহানি ঠেকাতে এবং মানবপাচার বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে দফায় দফায় আলোচনায় বসেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা। কিন্তু সংকটের সমাধানে তাদের এই প্রচেষ্টার মধ্যেও চলতি মে মাসেই ভূমধ্যসাগর থেকে ১০ হাজারেরও বেশি অভিবাসী উদ্ধার করা হয়েছে।
জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর বলছে, চলতি বছর এখন পর্যন্ত ৫১ হাজার অভিবাসী অবৈধ পথে ইউরোপে পাড়ি জমিয়েছে। এদের বেশিরভাগই আফ্রিকা ও এশিয়ার দারিদ্র্যপীড়িত দেশগুলোর নাগরিক।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:২২ অপরাহ্ণ | মে ১৭, ২০১৫