|

৭ বছর পর এসে স্ত্রী দাবী করায় স্বামী আটক, মুচলেকায় মুক্তি

আজহারুল হক, গফরগাঁও
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ৭ বছর পর এসে স্ত্রী দাবী করায় রুহুল আমীন (৩৭) নামে চাকুরীচ্যুত এক সেনা সদস্যকে গত বুধবার সন্ধায় আটক করে গফরগাঁও থানা পুলিশ। পরে মুচলেকা দিয়ে সে মুক্তি পায়।
জানা যায়, গফরগাঁওয়ের বালুয়াকান্দা গ্রামের আঃ জব্বারের মেয়ে ইয়াছমিনের (২৬) সাথে গত ৮ বছর পূর্বে পাশ্ববর্তী হোসেনপুর উপজেলার রজব আলী ছেলে সেনা সদস্য রুহুল আমীনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর দুজনের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হলে রুহুল তার স্ত্রীকে রাখতে অসম্মতি প্রকাশ করে। পরে গৃহবধূ ইয়াছমিন সেনা সদস্য স্বামীর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করে। এতে রুহুল চাকুরীচ্যুত হয়। এ দম্পতির ঘরে ৭ বছর বয়সী রিফা আক্তার নামে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। এ অবস্থায় শিশু সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে ৭ বছর পর রুহুল গত বুধবার শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে অবস্থান শুরু করে। পরে গৃহবধূ ইয়াছমিনের পরিবারের লোকজন গফরগাঁও থানায় অভিযোগ দিলে বুধবার সন্ধায় পুলিশ রুহুলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে মুছলেকা দিয়ে রাতেই রুহুল মুক্তি পায়।
গফরগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন বলেন, রুহুলকে তার শ্বশুরবাড়ি থেকে আটক করে থানায় নিয়ে আসার পর জানতে পারি স্বামী-স্ত্রী কেউ কাউকে ডিভোর্স দেয়নি। এ অবস্থায় স্ত্রীকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে শ্বশুরবাড়ি যাওয়া খুবই স্বাভাবিক। যেহেতু এখনো তারা দুজন বৈধ স্বামী-স্ত্রী তাই মুচলেকা নিয়ে বুধবার রাতেই রুহুল আমীনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৩২ অপরাহ্ণ | মে ১৪, ২০১৫