|

ময়মনসিংহে বাসে যাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা, চালকের ৫দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ

 

শাহ আলম উজ্জ্বল,
ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সদর উপজেলার চুরখাইয়ে গতকাল বুধবার বিকালে বাসে যাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টায় গ্রেফতারকৃত বাস চালক নূর উদ্দিনের ৫দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ আদালতে প্রেরণ করেছে।
ময়মনসিংহের কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু মোহাম্মদ ফজলুল হক জানান গতকাল বুধবার রাজধানী ঢাকার মহাখালী বাস স্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে আসা শেরপুরগামী যাত্রীবাহী বাসের চালক মহাসড়কের ত্রিশাল উপজেলার কাজীর শিমলায় বাসটি থামিয়ে গাড়িটি নষ্ট হয়ে গেছে যাত্রীদের নমিয়ে দেয়, এসময় বাসে শুধু একজন মহিলা যাত্রী ছিল।
বাসের সকল যাত্রী অন্য বাসে করে চলে যাওয়ার পর চালক গাড়িটি আস্তে চালিয়ে সামনের দিকে নিয়ে এসে চূরখাইয়ে রাস্তার পার্শ্বে গাড়িটি থামিয়ে চালক ও হেলপার মিলে জোর পূর্বক যাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে এ সময় কৌশলে মহিলা যাত্রী জানালা দিয়ে লাফিয়ে পড়ে চিকিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন গাড়ি আটক করে পুলিশকে খবর দিলে টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মহিলাকে উদ্ধার এবং গাড়ির চালক নূর উদ্দিন (৩৫)কে গাড়িসহ আটক করলেও হেলপার পালিয়ে যায়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক নূরুল হুদা জানান যাত্রী হীরা আক্তার বাদী হয়ে বাসের চালক ও ২ হেলপারকে আসামী করে কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা নং-৪৬(৫)১৫ দায়ের করে। এই মামলায় গ্রেফতারকৃত বাসের চালক নূর উদ্দিনের ৫ দিনের পুলিশী রিমান্ড চেয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
পুলিশ জানায় কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার নেয়ামতপুর গ্রামের জনৈকা (২৮) মহিলা যাত্রী ভূলে কিশোরগঞ্জের বাসে না উঠে শেরপুরের বাসে উঠে পরলে বাসের চালক ও হেলপার তাকে বলে ময়মনসিংহে এসে কিশোরগঞ্জের বাসে তুলে দিবেন। গ্রেফতারকৃত বাসের চালক নূর উদ্দিনের বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার নগুয়া গ্রামে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:০৭ অপরাহ্ণ | মে ১৪, ২০১৫