|

নান্দাইল ঘোষপালা মাদরাসার ভবন নির্মান কাজ ১৫ মাসেও শেষ হয়নি

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের ঘোষপালা সিনিয়র আলিম মাদরাসার নতুন দ্বি-তল ভবন ও পুরাতন ভবনের দ্বিতীয় তলার নির্মান কাজ ২০১৪ সালের ফ্রেরম্নয়ারী মাসে শুরু হয়। দীর্ঘ ১৫ মাস পেরিয়ে গেলেও ভবন নির্মানের ৪০ শতাংশ কাজ অসমাপ্ত রয়েছে। ফলে মাদরাসায় অধ্যয়নরতঃ শিক্ষর্থীদের সীমাহীন দর্ূভোগের মধ্যে ক্লাশ করতে হচ্ছে।
শিড়্গা মন্ত্রণালয়ের ফ্যাসিলিটিজ বিভাগ প্রায় ৬৪ লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে এ ভবন নির্মানের দরপত্র আহবান করে । ময়মনসিংহের মেসার্স হাজী মাহবুব তার ফার্মের নামে নির্মান কাজটি পায়। কাজটি পাওয়ার পর নান্দাইল উপজেলার মুশুল্লী ইউপিঃ চেয়ারম্যান মোঃ ইফতেকার উদ্দিন বিল্পব কাজটি সাব-ঠিকাদার হিসেবে কিনে নেয় যা নিয়মের বহিভ’ত। কাজটির ৬০ ভাগ সম্পন্ন করলেও ৪০ ভাগ কাজ এখনো বাকী রয়েছে। এ পযনর্ত্ম যে কাজ করা হয়েছে তাও সঠিক ভাবে করা হয়নি বলে এলাকাবাসী ও মাদরাসার অধ্যক্ষ জানান। অনিয়মে বাঁধা দিয়ে কোন লাভ হয়নি। নান্দাইলের সাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ অহিদুল ইসলাম প্রায় ৫/৬ হাজার নিম্নমানের ইট ব্যবহার না করার জন্য সাব ঠিকাদারকে নিষেধ করলেও সে নিষেধাজ্ঞার প্রতি অবজ্ঞা করে নিম্নমানের ইট গুলো ব্যবহার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ফ্যাসিলিটিজ বিভাগের নান্দাইলে অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা উপ- সহকারী প্রকৌশলী বাবু অনিল কুমার বিশ্বাস জানান, তিনি গত ৩০ ডিসেম্বর/১৪ তারিখে নান্দাইলে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে যোগদান করেছেন। যোগদানের পর থেকেই মাদরাসার কাজটি সস্পন্ন করার তাগিদ দেয়ার পর সাব ঠিকাদার বিল্পব আজকাল শুরু করবে বলে দিনক্ষেপন করে চলছেন বলে এ সংবাদদাতাকে জানান। অনিয়মের কথা জিজ্ঞাসা করলে তিণি বলেন, কাজটির শুরুতে যেহেতু তিনি ছিলেন না। তাই অনিয়মের কথা তিনি বলতে পারবেন না। এ ব্যাপারে ফ্যাসিলিটিজ বিভাগের ময়মনসিংহ জেলার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ দেলোয়ার হোসেন এর মোবাইল ফোনে (০১৭১৩৫২৭৫৭২) বেশ কয়েকবার কথা বলার চেষ্ঠা করলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যপারে সাব- ঠিকাদার মোঃ ইফতেকার উদ্দিন বিল্পব কে কাজ শুরুর কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আগামী শনিবার/ রবিবারের মধ্যে কাজ শুরম্ন করবো।দয়া করে পত্রিকাতে লিখবেন না। এ ব্যাপারে মাদরাসার অধ্যক্ষ আবুল হাসান মোঃ এনামূল হক বলেন, এটি একটি পরীক্ষা কেন্দ্র, পরীক্ষা কেন্দ্র হিসেবে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নতুন ভবন নির্মান ও পুরাতন ভবনে দ্বি-তল ভবনের কাজ সম্পন্ন করার জন্য টেন্ডার আহবান করা হয়েছে । কিন্ত ঠিকাদারের চরম গাফিলতির কারনে পরীক্ষার কাজেও ব্যাঘাত হচ্ছে। তিনি এ ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্ঠি কামনা করেছেন।#

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:০৫ অপরাহ্ণ | মে ১৩, ২০১৫