|

বাজিতপুরে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ ॥ গুরুতর আহত ১

বাজিতপুর সংবাদদাতা:  কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার কৈলাগ ইউনিয়নের রাহেলা গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত শুক্রবার (৮ মে) দিবাগত রাত ৯টার দিকে ছেনু মিয়া ও হাসান আলী গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ছেনু মিয়ার গ্রুপের বকুল মিয়া (৪৮) রামদার কুপের আঘাতে গুরুতর জখম হয়। তখন বকুল মিয়াকে জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যুর কূলে ঢলে পড়েন। এই ঘটনায় একই গ্রুপের নিহতের জামাতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (৩২)কে গুরুতর আহত অবস’ায় কুলিয়ারচর উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকা ও থানা সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে ছেনু মিয়া, হাসান আলী, জাহাঙ্গীর আলমের মধ্যে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। গত শুক্রবার বিকালে উপজেলা সদর বাজারের মাছমহলে মেনু মিয়াকে চর মারে জাহাঙ্গীর আলম। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ হাসান আলী জানান, ঐ রাতে তার পিতাকে চর মারার ঘটনাকে নিয়ে এলাকায় সালিশ বৈঠক হয়। সেখানে জাহাঙ্গীর আলমের রামদায়ের আঘাতে বকুল মিয়া (উক্ত জাহাঙ্গীর আলমের শ্বশুর) খুন হয়। পুলিশ নিহত বকুল মিয়ার লাশ ময়না তদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছেন। নিহতের বড় ভাই আব্দুল আওয়াল বাদী হয়ে হাজী লতিফ মিয়া, হাসান আলীসহ ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনের নামে হত্যা মামলা রুজু করেন। বাজিতপুর থানার ইনচার্জ সুব্রত কুমার সাহা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন- এ ব্যাপারে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে এবং হত্যা মামলা রুজু হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৫:১৫ অপরাহ্ণ | মে ০৯, ২০১৫