|

কলমাকান্দা থানা পুলিশ হাতে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান লাঞ্ছিত

 

কলমাকান্দা (নেত্রকোণা) সংবাদদাতা ঃ নেত্রকোণা জেলার কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বে”ছাসেবক লীগ নেতা মোঃ রফিকুজ্জামান খোকন বৃহস্পতিবার সকালে কলমাকান্দা থানায় লাঞ্ছিত হয়েছেন মর্মে অভিযোগ করেছেন। ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুজ্জামান খোকন কলমাকান্দা প্রেসক্লাবে এসে জানান, উপজেলার রংছাতি ইউনিয়নে বর”য়াকোণা গ্রামের গর” ও ঘোড়া ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিন তাহিরপুর উপজেলা হতে ১০টি ঘোড়া কিনে ট্রাকযোগে জামালপুর জেলার তুলশীপুর বাজারে নিয়ে যাওয়ার পথে কলমাকান্দা পূর্ববাজার এলাকায় ট্রাকসহ ঘোড়া গুলি আটক করে কলমাকান্দা থানার এসআই জাহিদ। ঘোড়া ব্যবসায়ী ঘোড়া গুলির বৈধ কাগজপত্র দেখানোর পরও ঘোড়াগুলি না ছেড়ে ব্যবসায়ীর নিকট ৫০,০০০/- টাকা উৎকোচ দাবী করে। টাকা না দেওয়ায় ট্রাকসহ সকলকে আটক করে থানায় নিয়ে শারিরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে। উক্ত সংবাদ পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বে”ছাসেবকলীগ নেতা রফিকুজ্জামান থানায় গেলে পুলিশের সংগে কথা কাটাকাটি, অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও এক পর্যায়ে মামলায় ফাসিয়ে দিবে বলে হুমকি দেয়। কলমাকান্দা থানার ওসি বশির আহমেদ ঘোড়া আটকের কথা স্বীকার করে ভাইস চেয়ারম্যান এর সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে মর্মে জানান। ভাইস চেয়ারম্যান জানান, লজ্জার ব্যাপার সব ঘটনা বলতে পারছি না। আমি ভীষনভাবে নাজেহাল হয়েছি। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ মোঃ ফখর”ল ইসলাম ফিরোজ জানান, পুলিশ বেপরোয়া ভাবে বেআইনী বানিজ্য করে যা”েছ। এলাকার সাধারণ মানুষ পুলিশের দ্বারা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস’ হ”েছ। পুলিশের এখতিয়ার বর্হিভূত কাজ ব্যাপকভাবে চালিয়ে যা”েছ। এব্যাপারে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেও কোন প্রতিকার পাওয়া যা”েছ না। উপজেলাবাসী পুলিশের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছে। ঘটনাটির নিরপেক্ষ তদন-ক্রমে দায়ী পুলিশ কর্মকর্তাদের বির”দ্ধে ব্যবস’া গ্রহনের দাবী জানান। ঘটনাটি উপজেলায় ব্যপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:২৪ অপরাহ্ণ | মে ০৭, ২০১৫