|

দরিদ্র মেধাবী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা বঞ্চিত ॥ উপবৃত্তি পেল সচ্ছল শিক্ষার্থীরা

গফরগাঁও প্রতিনিধি ঃ
নিয়ম অনুযায়ী দরিদ্র মেধাবী, অস্বচ্ছল ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের উপবৃত্তি দেয়ার কথা থাকলেও ময়মনসিংহের গফরগাঁও সরকারি কলেজে সচ্ছল শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তির টাকা বিতরনের অভিযোগ উঠেছে।  মঙ্গলবার দুপুরে উপবৃত্তির টাকা বিতরনের সময় বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, অসচ্ছল, মেধাবী শিক্ষার্থীরা কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে।
কলেজ ও শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, সরকারের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের ‘স্নাতক(পাশ) ও সমমান পর্যায়ের ছাত্রীদের উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্পের’ অধীনে চলতি বছর গফরগাঁও সরকারি কলেজের ২৯১জন অসচ্ছল, মেধাবী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান (শতকরা ৪০শতাংশ হারে) উপবৃত্তি পাওয়ার কথা। কিন’ গত বছরের ১১ জুন প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের সভায় ৩০শতাংশ ছাত্রী ও ১০শতাংশ ছাত্রদের উপবৃত্তি প্রদানের সির্দ্ধান- হয়। এতে গফরগাঁও সরকারি কলেজের উপবৃত্তি প্রাপ্ত ২৯১জন ছাত্রীর মধ্য থেকে ২৮জনকে বাদ দিয়ে ২৮জন ছাত্রের নাম তালিকাভূক্ত করা হয়। অভিযোগ উঠেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ অসাধু উপায়ে যাচাই বাছাই ছাড়াই প্রকৃত অসচ্ছল, মেধাবী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বাদ দিয়ে টাকার বিনিময়ে অপেক্ষাকৃত সচ্ছল ছাত্রদের উপবৃত্তি প্রদানের আওতায় আনেন। উপবৃত্তি বঞ্চিত গফরগাঁও সরকারি কলেজের বিএ ১ম বর্ষের দুই শিক্ষার্থী, অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার সন্তান (পাপিয়া আক্তার ও রেজিয়া আক্তার) ক্ষোভ প্রকাশ করে জানায়, ‘অন্যায়ভাবে অসচ্ছল, দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের নাম বাদ দিয়ে স্বচ্ছল ছাত্রদের উপবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। কলেজের চতুর্থ শ্রেণীর এক কর্মচারী (নিজাম উদ্দিন) নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ করে বলেন, আবুল কালামের কাছে শিক্ষার্থীরাসহ সকলেই অসহায়। সে কাউকে পরোয়া করে না। সব কিছু নিজের মত করে।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৩২ অপরাহ্ণ | মে ০৫, ২০১৫