|

বাজিতপুরে বোরো ধানের দাম নিয়ে কৃষকের হতাশা

 

বাজিতপুর সংবাদদাতা :
কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলা সহ ১১টি ইউনিয়নের ২১ হাজার কৃষক এ বছর ২০ হাজার হেক্টর জমিতে ইরি-বোরো ধান বাম্পার ফলন হলেও বৈশাখের প্রথম থেকে পাকা ধান কাটার পর ৪০০ থেকে ৪৫০টাকায় ধান বিক্রি করতে হচ্ছে বাধ্য হয়ে । কিন’ আড়াই মাসে ইরি -বোরো ধান ফলাতে কৃষকের প্রতি মণ ধানের উৎপাদন খরচ পড়েছে ৬০০ থেকে ৭০০ শত টাকা । প্রতি একর ইরি-বোরো ধানেরজমি কাটতে খরচ হচ্ছে ৬-৭ হাজার টাকা । মঙ্গলবার সরেজমিন গিয়ে কয়েকজন কৃষকের সাথে আলাপ করে জানা গেছে,গত কিছু দিন আগে সিলেট এর পাহাড়ি ঢল নেমে বাজিতপুর হাওরের কয়েকশ একর পাকা ধানি জমি তলিয়ে যাওয়ায় ফসল নষ্ট হয়েছে । এছাড়া অষ্টগ্রাম, মিটামইন ও নিকলীর বড় হাওরে কয়েক হাজার একর জমি পানিতে তলিয়ে গেছে ।অন্য দিকে,পৌষ মাঘ মাসে ইরি-বোরো জমি তৈরি করতে গিয়ে ভৈরী আবহাওয়ার সম্মুখীন হওয়ায় কিছু জমির বীজ নষ্ট হয়ে যায় । বাজিতপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু মোহাম্মদ এনায়েতুলস্নাহ জানান,এ বছর ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে ।কিন’ কৃষক তার উৎপাদিত মূল্য সঠিকভাবে পাচ্ছেনা বলে উলেস্নখ করেন ।

 

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:০৭ অপরাহ্ণ | মে ০৫, ২০১৫